kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

চাঁদে ভারতের ব্যর্থ অভিযান নিয়ে পাকিস্তান মন্ত্রীর কটাক্ষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১২:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদে ভারতের ব্যর্থ অভিযান নিয়ে পাকিস্তান মন্ত্রীর কটাক্ষ

ভারতের চাঁদের মাটিতে পা রাখার 'চন্দ্রযান-২' অভিযান ব্যর্থ হয়েছে। পথের শেষ ২ কিলোমিটারের 'বাধা' অতিক্রম করতে পারেনি। এমনটা হলেও প্রত্যেক ভারতবাসী গর্ব করে বলছে 'কোনো সমস্যা নেই'। ভারত ব্যর্থ হয়নি, বরং ৯ শতাংশ সফল হয়েছে। ইসরো প্রধান পিঠ চাপড়ে গোটা দেশের উদ্দেশে সফলতার বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় বিজ্ঞানীদের জয়জয়কার করছে গোটা বিশ্ব। তবে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলোর অভিযোগ, এই বিষয়তেও নাক গলাতে ছাড়েনি পাকিস্তান। চন্দ্রযান শতভাগ সফল না হওয়াতে বেশ খুশি হয়েছে ইসলামাবাদ।

এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, চন্দ্রযান-২ নিয়ে পাকিস্তানের এক মন্ত্রী ফওয়াদ হোসেন চৌধুরী টুইটারে লেখেন, 'যা পারো না, তা করতে যাওয়া উচিত নয়। এন্ডিয়া।' এই 'এন্ডিয়া' লিখে তিনি বোঝাতে চান যে, ভারতের চন্দ্রযান মিশন শেষ হয়েছে।

শুধু এটা বলেই থামেননি পাক মন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে আরও বলেন, 'মোদী স্যাটেলাইট নিয়ে এমন ভাষণ দিচ্ছেন যেন তিনি কোনো মহাকাশচারী। বরং তাকে প্রশ্ন করা উচিত যে, গরীব দেশ হয়ে কেন ৯০০ কোটি খরচ হলো।'

পাক মন্ত্রীর এই 'দুঃসাহস' দেখে তাজ্জব ভারতীয় নেটিজেনরা। মুহূর্তের মধ্যে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরব হন সকলে। কেউ কেউ উল্টো কটাক্ষ করেন। তাদের ভাষ্য, যাদের সামান্যতম কিছু করার ক্ষমতা নেই, তারা চন্দ্রযান নিয়ে কথা বলছে। আরো অনেকের কথায়, নিজেদের লজ্জায় ফেলা বন্ধ করুক পাকিস্তান। ভারত অন্তত চাঁদে পা রাখার চেষ্টা করেছে। আর ভারত চাঁদকে দেখার জন্য লড়াই করছে। যেকোনো দেশের বৈজ্ঞানিক প্রচেষ্টার প্রশংসা করা উচিত।

উল্লেখ্য, চাঁদের পিঠে নামার মাত্র ২.১ কিলোমিটার আগে ইসরোর সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ল্যান্ডার বিক্রমের। প্রথমে আশা প্রত্যাশা করা হলেও ক্রমশ ধোঁয়াশা কেটে বোঝা যায় যে ল্যান্ডার বিক্রম আয়ত্ত্বের বাইরে চলে গেছে। বিচ্ছিন্ন হয়েছে গ্রাউন্ড স্টেশনের সঙ্গে সমস্ত সংযোগ। শনিবার ভারতীয় সময় আনুমানিক ২টা ১০ নাগাদ চাঁদের পৃষ্ঠ থেকে ২ কিলোমিটার ১০০ মিটার দূরত্বে শেষ সংকেত পাওয়া গিয়েছিল ল্যান্ডার বিক্রমের থেকে। তারপর আর কোনো যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সূত্র: মহানগর 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা