kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

করাচির মাটি খুঁড়ে মিলল এসব মহা মূল্যবান বস্তু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করাচির মাটি খুঁড়ে মিলল এসব মহা মূল্যবান বস্তু

খনন কার্যের সময় মাটির তলা থেকে বেরিয়ে আসে বেশ কিছু মূল্যবান মূর্তি

পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় শহর করাচির একটি প্রাচীন মন্দিরে খনন কার্য চালানো হয়েছে।  সেই খনন কার্যের সময় মাটির তলা থেকে বেরিয়ে এসেছে বেশ কিছু মূল্যবান মূর্তি। করাচির সোলজের বাজারে অবস্থিত বিখ্যাত পঞ্চমুখী হনুমানের মন্দিরে ওই খনন কার্য চালানো হয় বলে জানা গেছে। 

খনন কার্য চালানোর সময়ে মূর্তিগুলি পাওয়া গেছে। মনে করা হচ্ছে,  এই প্রাচীন মূর্তিগুলি বেশ মূল্যবান। এই মূর্তি গুলি হলুদ রঙের পাথর দিয়ে তৈরী করা হয়েছিল, এতে সিঁদুরের দাগও স্পট।  

জানা গেছে,  ওই স্থান থেকে মহাবীর বজরংবলী, গনেশ মহারাজ ও নন্দী মহাবীরের মূর্তি পাওয়া গেছে । সোলজের বাজার ঘন বসতি পূর্ণ এলাকা। সেখানকার প্রাচীন মন্দিরটিকে মেরামত করার জন্যই খনন কার্য শুরু হয়েছিল। শ্রমিকরা খনন কার্য চালানোর সময় মন্দিরের ভেতর থেকে ছোট বড় মিলিয়ে ১৫ টি মূর্তি উদ্ধার করে।  

মন্দিরের পুরানো দিকের মেঝে খুঁড়ার সময় এই মূর্তিগুলির সাথে একটি যজ্ঞ কুন্ড এবং একটা ছোট্ট সুড়ঙ্গের হদিশ পাওয়া যায়. তার মধ্যে থেকে একটি ছোট্ট ভষ্ম সহ কলসি পাওয়া গেছে। মনে করা হচ্ছে এই ভস্ম হয়তো কোনো সাধু-সন্তের। কারণ তার সাথে তার ব্যক্তিগত কিছু জিনিসপত্র পাওয়া গেছে।   

যারা মন্দিরে খনন কার্য চালাচ্ছিল এবংমন্দিরের দেখভাল করে তাদের মতে, মূর্তিগুলি দেখে সেগুলিকে ১৫০০ বছর পুরানো বলে মনে করা হচ্ছে। তবে মূর্তি গুলি প্রকৃতপক্ষে কত পুরানো তা জানার জন্য প্রত্নতত্ত্ববিদদের ডাকা হয়েছে। সরকারের কাছে আবেদন করা হয়েছে যাতে এই মন্দির পুনরায় তৈরী করে সেটিকে রাষ্ট্রীয় স্মারকের মর্যাদা দেওয়া হয়।   

সূত্র : এনডিটিভি 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা