kalerkantho

নিজে উদ্বোধন করা সিবিআই দপ্তরে রাত কাটল চিদম্বরমের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৮:৩৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিজে উদ্বোধন করা সিবিআই দপ্তরে রাত কাটল চিদম্বরমের

ভারতের দিল্লির লোধি রোডের ঝাঁ চকচকে বাড়িটার উদ্বোধন করেছিলেন তিনি। আজ সেই তিনিই অভিযুক্ত হয়ে রাত কাটালেন সেখানে। এমন দিনের কথা হয়তো কল্পনাও করতে পারেননি পি চিদম্বরম। 

কিন্তু বাস্তবে সেটা ঘটে গেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন ২০১১ সালে দিল্লিতে সিবিআই প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধন করেছিলেন চিদম্বরম। গতকাল সেখানেই রাত কাটান তিনি। ২৭ ঘণ্টা পর গতকাল রাতে সিবিআই এর হাতে গ্রেপ্তার হন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। 

যেন বুমেরাং হয়ে ফিরে এল ঘটনাটি। ২০১০ সালে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল অমিত শাহকে। তখন পি চিদম্বরম ছিলেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বর্তমানে চিদম্বরমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, আর ভারতের বর্তমান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় তার ওপর অবশ্য খাঁড়া ঝুলছিল বেশ কিছুদিন ধরে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, সাড়ে চার কোটির বদলে তিনশ ৫০ কোটি টাকা বেআইনি পথে ভারতে আনার মূল ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে। নিজের ছেলে কার্তি চিদম্বরমের সংস্থাকে বেআইনিভাবে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এই অভিযোগে সাবেক ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে তদন্ত করার আবেদন করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই। ওই আবেদনের বিরুদ্ধে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে গিয়েছিলেন চিদম্বরম। কিন্তু মঙ্গলবারই সেই আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাকে মূল চক্রান্তকারী উল্লেখ করে আদালত। তারপর তার বাড়িতে পৌঁছায় সিবিআই ও ইডি'র কর্মকর্তারা।

কিন্তু বাড়ি তো দূরের কথা, তার মোবাইল টাওয়ারের হদিশ পর্যন্ত পাননি তারা। মঙ্গলবারই হাইকোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শীর্ষ আদালতে যান চিদম্বরমের আইনজীবী কপিল সিব্বল ও অভিষেক মনু সিংভি। পরে শুক্রবার শুনানির দিন ঘোষণা করা হয়।

সুপ্রিম কোর্টে শুনানির দিন শুক্রবার ঘোষণা হওয়ার পর মাত্র আধঘণ্টার নোটিশে সাংবাদিক সম্মেলন ডাকে কংগ্রেস। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন অভিষেক মনু সিংভি, কপিল সিব্বলরা। শুরু হয় সাংবাদিক বৈঠক। ঠিক তখনই নাটকীয় মোড় নেয় চিদম্বরম-পর্ব। ২৭ ঘণ্টা পর প্রকাশ্যে আসেন সাবেক কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম।

তিনি দাবি করেন, নিজে নির্দোষ। তার কথায়, আমি কোথাও পালিয়ে যাইনি, দিল্লিতেই ছিলাম। আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করছিলাম।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ সেরে তড়িঘড়ি নিজের জোরবাগের বাড়িতে ফেরেন  সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। একই সঙ্গে তাকে ধাওয়া করে বাড়ি পৌঁছায় ১৫-২০ জনের সিবিআই কর্মকর্তাদের একটি দল। ওই সময় সাবেক মন্ত্রীর বাড়ির দরজা বন্ধ ছিল। পাঁচিল টপকে ভিতরে প্রবেশ করেন কয়েকজন। ভিতর থেকে তারা দরজা খুলে দেন। 

এরপর বাড়ির ভেতরে যান কেন্দ্রীয় তদন্তকারী কর্মকর্তারা। ঠিক তখনই বাড়ির অপর প্রান্তে উপস্থিত ইড'র কর্মকর্তারা। দফায় দফায় চলে চিদম্বরমকে জিজ্ঞাসাবাদ। ২৮ ঘণ্টা পর গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। নিজেদের গাড়িতে করে সাবেক মন্ত্রীকে দপ্তরে নিয়ে যায় সিবিআই। আজ তাকে সিবিআই আদালতে পেশ করার কথা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা