kalerkantho

সীমা ছাড়িয়ে গেছেন জাকির নায়েক : মাহাথির মোহাম্মদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৯ ২০:৫৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সীমা ছাড়িয়ে গেছেন জাকির নায়েক : মাহাথির মোহাম্মদ

ফের আরেকবার ভারতের বিতর্কিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। তিনি বলেন, মালয়েশিয়ার ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত ইস্যুতে কথা বলার সময় সীমা লঙ্ঘন করেছেন জাকির নায়েক। এবং মালয়েশিয়ার ভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায় ও জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে অস্থিরতা উসকে দিচ্ছেন।

তুন ড. মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, তিনি নিশ্চিত নন, কারা ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই মুসলিম ধর্মপ্রচারককে মালয়েশিয়া স্থায়ী বসবাসের অনুমতি দিয়েছেন। এছাড়া স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পেলেই কেউ সেদেশের রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করতে পারেন না।

মালয়েশিয়ার সাবেক শাসক দল বারিসান ন্যাশনাল প্রশাসন জাকির নয়েককে স্থায়ীভাবে মালয়েশিয়ায় বসবাসের অনুমতি দিয়েছিলো।

রবিবার (১৮ আগস্ট) ৬২ তম আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান ইনস্টিটিউট বিশ্ব পরিসংখ্যান কংগ্রেস ২০১৯ উদ্বোধন করার পর এক সংবাদ সম্মেলনে ড. মাহাথির বলেন, ‘ধর্মীয় শিক্ষকেরা ধর্ম প্রচার করতে পারেন, রাজনীতি করতে পারেন না। কিন্তু তিনি সেই কাজ করছেন না। তিনি মালয়েশিয়ায় থাকা চীনা ও ভারতীয়দের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর কথা বলছেন। এটাতো রাজনীতি।’

জানা গেছে, সম্প্রতি মালয়েশিয়ার পেনাং, পেরিলিস, কেদাহ ও সারাওয়াক অঙ্গরাজ্যে ড. জাকির নায়েকের প্রকাশ্যে কথা বলার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে ।

ড. মাহাথির বলেন, দেশের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের কাছে সংবেদনশীল বিষযয়ে কীভাবে কথা বলা হচ্ছে, তা নিয়ে আমাদের সরকার সতর্ক ছিলো।

‘এই ধরনের কথা আমি কখনও বলিনি। কিন্তু তিনি চীনাদেরকে নিজের দেশে ফেরত পাঠাতে বললেন।’

‘আপনি যদি ধর্ম নিয়ে কথা বলতে চান, এগিয়ে যান, তা অনুমোদনযোগ্য । তা থেকে আমরা তাকে থামিয়ে রাখতে চাই না। কিন্তু তিনি এখন স্পষ্টতই মালয়েশিয়াযর জাতিগত রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করতে চাইছেন। তিনি জাতিগত অনুভূতিতে আঘাত করছেন। যা খারাপ কাজ।’

ড. মাহাথির আরো বলেন, ‘পুলিশকে তদন্ত করতে হবে ড. জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় সাম্প্রদায়িত ও জাতিগত উত্তেজনা সৃষ্টি করছেন কি না।’ তবে মাহাথিরের মত হলো জাকির নায়েকে স্পষ্টতই তা করছেন।

ড. মাহাথির আরো বলেন, জাকির নায়েকের ওপর আইনের শাসন জারি করা হবে। কেননা তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তিনি জাতিগত রাজনীতি নিয়ে কথা বলছেন এবং জাতিগত উত্তেজনা উসকে দিচ্ছেন।

‘আমরা যা ব্যবস্থা নেওয়ার তা আইন অনুযায়ীই নিবো। কেননা আমাদের সরকার আইনের শাসনকে সম্মান করে।’

৮ আগস্ট তারিখে কোটা বারুর কেলাতান এর একটি ধর্মীয় আলোচনা সভায় ড. জাকির নায়েক তাকে মালয়েশিয়া থেকে বের করে দেওয়ার আহবানের জবাবে বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় থাকা চীনাদেরই সবার আগে নিজ দেশে ফিরে যাওয়া উচিত। কারণ তারাই মালয়েশিয়ার সবচেয়ে পুরানো অতিথি।’

এর আগে ড. জাকির বলেছিলেন, ‘মালয়েশিয়ায় হিন্দুরা ড. মাহাথির মোহাম্মদের চেয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি বেশি অনুগত।’

সূত্র: দ্য স্টার, এশিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা