kalerkantho

গুগলে 'ভিখারি' লিখে সার্চ দিলেই ইমরান খানের ছবি আসছে? (ভিডিওসহ)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৯ ১৫:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গুগলে 'ভিখারি' লিখে সার্চ দিলেই ইমরান খানের ছবি আসছে? (ভিডিওসহ)

গুগলে 'বেগার' বা 'ভিখারি' শব্দটা লিখে সার্চ করলে চলে আসে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরানের নাম ও ছবি। এ নিয়ে গত বছরের শেষের দিকেও জায়ান্ট গুগলের বিরুদ্ধে পাঞ্জাব অ্যাসেমব্লিতে এক রেজ্যুলেশন ফাইল করা হয়। তবে ঘটনা এখনো ঘটেই চলেছে। 

সপ্তাহ খানেক আগে পাকিস্তানের এক পেঁয়াজ বিক্রেতা টুইটে লিখেছেন, ঈদের আর বাকি ৩-৪ দিন। কিন্তু বাজার একেবারে ভালো না। আমরা সবজি আর পেঁয়াজের জন্যে ভারতের ওপর নির্ভর করি। ঈদে রান্নার জন্যে এগুলো অতি জরুরি পণ্য। আমি নিশ্চিত, পেঁয়াজের দাম সামনে বাড়বে। আমরা কী খাবো বলে ইমরান খান চাইছেন? ঘাস? 

গুগল সার্চে এগুলো লিখলে অবশ্য ইমরানকে নিয়ে 'বেগার' বা 'ভিখারি' সংক্রান্ত যত খবর হয়েছে সেগুলো এবং সংশ্লিষ্ট ছবি বেরিয়ে আসে। 

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে দেখা গেছে, গুগলে 'বেস্ট টয়লেট পেপার ইন দ্য ওয়ার্ল্ড' লিখে সার্চ দিলে সেখানে পাকিস্তানের পতাকা চলে আসে। মূলত ফেব্রুয়ারির ১৪ তারিখে জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা ডিস্ট্রিক্টে পাকিস্তান-ভিত্তিক সন্ত্রাসী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মাদের হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন সিআরপিএফ সেনা নিহত হন। সেই ঘটনার পর পরই গুগল সার্চে দুনিয়ার সেরা টয়লেট পেপার হিসেবে পাকিস্তানের পতাকা আসতে থাকে।

গত বছর গুগলের এমন ভুতুড়ে অ্যালগোরিদমের শিকার হয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সার্চ ইঞ্জিনে মানুষ 'ইডিয়ট' লিখে খোঁজ করলেই ট্রাম্পের ছবি চলে আসতো। ট্রাম্প এবং গুগলে 'ইডিয়ট' এর সম্পর্কটা স্থাপিত হয় লন্ডন বিক্ষোভের পর। মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফর উপলক্ষে সেখানে বিক্ষোভকারীরা 'আমেরিকান ইডিয়ট' গান গাইতে থাকেন। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বিজনেস টুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়,  ইমরান খানের সঙ্গে সার্চে ভিখারির সম্পর্কটা পাকিস্তানের অর্থনৈতিক দৈন্যদশাকেই ফুটিয়ে তোলে। সম্প্রতি ভারত কাশ্মীরের ওপর থেকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল করে দেয়ার পর পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বন্ধ করে দেয় ভারতের সাথে। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য তখনই বন্ধ হলো যখন পাকিস্তানের অর্থনীতি চীন, সৌদি আরব এবং আন্তর্জাতিক অর্থ সংস্থার সহায়তায় লাইফ সাপোর্টে রয়েছে। পাকিস্তানের ফরেন রিজার্ভ ৭.৭৬ বিলিয়নে অবস্থান করছে। এটা বাংলাদেশের বৈদেশিক রিজার্ভের নিচে। দেশটির জিডিপি ৪ শতাংশে নেমে এসেছে। এর মুদ্রস্ফীতি এ বছরের জুনে দাঁড়িয়েছে ৮.৯ শতাংশে। 

সূত্র: বিজনেস টুডে, পাকিস্তান টুডে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা