kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

‘বাবরি মসজিদের স্তম্ভে দেবদেবীর ছবি মিলেছে’! দাবি আইনজীবির!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ আগস্ট, ২০১৯ ২২:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘বাবরি মসজিদের স্তম্ভে দেবদেবীর ছবি মিলেছে’! দাবি আইনজীবির!

বাবরি মসজিদের স্তম্ভগুলিতে মহাদেব, বিষ্ণুবাহন গরুড়, আদি শক্তির বাহন সিংহের ছবি মিলেছে। যা প্রমাণ করে যে জায়গার উপর ওই মসজিদটি গড়ে উঠেছিল তা হিন্দুদের পবিত্র স্থান ছিল। 

শুক্রবার, ভারতের সুপ্রিম কোর্টে বাবরি মসজিদ নিয়ে শুনানিতে ‘‌রাম লাল্লা বিরাজমান’‌ পক্ষের আইনজীবী সি এস বৈদ্যনাথন এধরনের প্রায় ১০০টি ছবি আদালতে পেশ করে এই দাবি করেন। 

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ–এর নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ ‘‌রাম লাল্লা বিরাজমান’‌ পক্ষকে প্রশ্ন করেছিল বাবরি মসজিদ যে রাম মন্দিরের ধ্বংসাবশেষের উপরই তৈরি সেই প্রমাণ দিক তারা।

কারণ বিভিন্ন যুগে নদীর পাড়ে নতুন সভ্যতা গড়ে উঠেছে এবং তা হয়েছে পুরনো সভ্যতার ধ্বংসাবশেষের উপরই। কিন্তু ওই জায়গায় যে রামেরই মন্দির ছিল সেই প্রমাণ চায় শীর্ষ আদালত।

তার জবাবে শুক্রবার বৈদ্যনাথন ওই ছবিগুলি এবং অযোধ্যার ওই জায়গার একটি মানচিত্র পেশ করে দাবি করেন, কোনও মসজিদের দেওয়ালে ওই ছবি পাওয়া যায় না। বাবরি মসজিদ ধ্বংস হওয়ার অনেক আগে ১৯৫০ সালে প্রত্নতাত্ত্বিকরা যখন খোঁড়াখুঁড়ি করেছিলেন তখন তাঁরা স্তম্ভের গায়ে এধরনের বেশ কিছু ছবি, ভাস্কর্য খুঁজে পান যেগুলি হিন্দু মন্দিরেই দেখা যায়। অথচ সেখানে কোনও ইসলামিক ভাস্কর্য বা নথি পাওয়া যায়নি। 

তখন বেঞ্চের সদস্য বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, ওই ছবিগুলি সাধারণ মানুষ বা পশুপ্রাণীরও হতে পারে, তাঁরা কী করে নিশ্চিত হচ্ছেন সেগুলি দেবতার উদ্দেশ্যে তৈরি।

তখন বৈদ্যনাথন বলেন, প্রত্নতাত্ত্বিকরা পরীক্ষা করে দেখেছেন ওই ছবি এবং ভাস্কর্যগুলি প্রায় দুই খ্রিস্ট পূর্বাব্দের সময়কার। আদালতের এধরনের প্রমাণ নথি হিসেবে গ্রহণ করা উচিত বলেও সওয়াল করেছেন বৈদ্যনাথন!

সূত্র: আজকাল

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা