kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

ষাটেও ‌রূপে অপরূপ থাকেন কাশ্মীরে এই উপত্যকার নারীরা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ আগস্ট, ২০১৯ ২১:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ষাটেও ‌রূপে অপরূপ থাকেন কাশ্মীরে এই উপত্যকার নারীরা

বয়স বেড়ে গিয়েই ‌যতো সমস্যার সৃষ্টি হয় পৃথিবীতে। এ পৃথিবীতে ‌যদি এমন স্বর্গের খোঁজ মেলে যেখানে কখনো মানুষ বুড়িয়ে যাবে না তাহলে তো আর কথাই নেই। সব সমস্যার সমাধান। বুড়িয়ে যাওয়া নিয়ে কোনো সমস্যা থাকবে না। সত্যিই পৃথিবীতে এমন এক জায়গা আছে ‌যেখানে থমকে যায় বয়স।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, পাকিস্তানের গিলগিট-বালটিস্তান প্রদেশের হুনজা ভ্যালিতে গেলে ‌যুবতি কন্যা তার মা আর দিদিমাকে একসঙ্গে দেখলে আপনি গুলিয়ে ফেলবেন। সত্তরেও টগবগে ‌যুবক থাকেন এখানকার মানুষ। তাই এই জায়গাকে বলা হয় জন্নত বা স্বর্গ। দেশ বিদেশের বহুলোক ভিড় জমায় এখানে।

পাকিস্তানে দখলে থাকা কাশ্মীরে একটা অংশ হলো হুনজা ভ্যালি। এই স্থানকেই বলা হয় ভূস্বর্গ আর বলা হয় পৃথিবীর ছাদ। সমুদ্রপৃষ্ট কয়েক হাজার ফিট উপরে হিমালয়ে কোলে পাহাড় ঘেরা এই ভ্যালির সৌন্দর্য আর নির্মল পরিবেশ সবাইকে টেনে নিয় যায়। এখানে পরিবেশ এতটাই নির্মল ‌যে রোগ বালাই ধারে কাছে ঘেঁষে না এই হুনজা জাতীকে। 

প্রাচীন এই হুনচা জাতীর লোক প্রায় ১২০ বছর সুস্থ শরীরে বাঁচে। ৬০ বছরেও সন্তানের জন্ম দেয় এখানকার নারী। মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত থাকে কর্মক্ষম। এসবের প্রধান কারণ নির্মল প্রকৃতি আর সঙ্গে এই জীবন‌যাত্রা মান। নিজেদের উত্‍পাদন করা শাক সবজি ফল আর পালিত পশুর দুধ-মাংস ছাড়া কিছুই খায় না তারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা