kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ জুলাই ২০১৯। ৪ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৫ জিলকদ ১৪৪০

রাখাইনে আবারো রোহিঙ্গা নির্যাতনের শঙ্কা জাতিসংঘের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ জুন, ২০১৯ ১৭:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাখাইনে আবারো রোহিঙ্গা নির্যাতনের শঙ্কা জাতিসংঘের

মিয়ানমারের রাখাইন ও চীন রাজ্যে আবারো রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর সহিংসতা চালাতে পারে দেশটির সেনা সমর্থিত সরকার বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। জানা গেছে, গত ২১ জুন থেকে ওই অঞ্চলে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দিয়েছে সে দেশের সরকার। এরকম পরিস্তিতিতে সেখানে মানবাধিকার লংঘনের মতো ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে জাতিসংঘ।

যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে মিয়ানমার সরকার। এদিকে সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে গত কিছুদিন ধরে কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করে রেখেছে মিয়ানমার।

জাতিসংঘের বিশেষ মুখপাত্র ইয়াংহি লি জানিয়েছেন, জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে আমরা শঙ্কিত। আমরা জানতে পেরেছি, ওই এলাকায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী একটি অভিযান পরিচালনা করছে। যেখানে বড় মাত্রায় মানবাধিকার লংঘনের শঙ্কা রয়েছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থায় জমা দেয়া প্রতিবেদনে ইয়াংহি লি বলেন, স্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে যে, গত ১৯ জুন মিয়ানমার সেনাবাহিনী রাখাইনে হেলিকপ্টারযোগে হামলা চালিয়েছে। তার পর দিন বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সদস্যরা মিয়ানমারের একটি নৌযানে আগুন ধরিয়ে দিলে দুই নৌ-সেনা নিহত হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হামলায় প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা দেশ ত্যাগ করে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। জাতিসংঘের মতে সেনাবাহিনীর এ আচরণ ছিল ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান'।

সূত্র : ডয়েচে ভেলে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা