kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

শত্রুপক্ষের নারীদের ফাঁদে পড়ার শঙ্কায় সেনাদের সতর্কবার্তা দিল ভারত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৯ ১৭:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শত্রুপক্ষের নারীদের ফাঁদে পড়ার শঙ্কায় সেনাদের সতর্কবার্তা দিল ভারত

ভারতীয় সেনাবাহিনী সদস্যদের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে সুন্দরী নারীদের দিয়ে ফাঁদ পেতে রাখছে শত্রু দেশগুলো। তাদের গোপন গতিবিধি ও কাজকর্মের খোঁজখবর রাখতেই এরকম কাজ করছে শত্রু দেশগুলো। যাকে বলা হচ্ছে ‘হানি ট্র্যাপ’। 

এ বিষয়ে গত সোমবার সেনাকর্মকর্তাদের সতর্ক বার্তা পাঠিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

ভারতের বার্তা সংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সে দেশের সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা দপ্তরের কার্যালয় থেকে পাঠানো ওই সতর্ক বার্তায় বলা হয়েছে, ইতো মধ্যে দু'টি হানি ট্র্যাপের সন্ধান পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একটি ফেসবুকে এবং অন্যটি ইনস্টাগ্রামে। 

ভারতীয় গোয়েন্দা দপ্তরের সন্দেহ, শত্রুরাষ্ট্রের গুপ্তচররা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে নারীদের দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলে সেনাবাহিনীর জওয়ান ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভাব জমিয়ে তাদের গতিবিধি ও কাজকর্মের খবর জানার চেষ্টা করছে। সৈনিক ও কর্মকর্তাদের দায়িত্ব ও গুরুত্ব যাচাই করে তাদের ফাঁদে ফেলারচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলেও জানানো হয়।

সন্দেহজনক এক অ্যাকাউন্টের প্রোফাইলে জানানো হয়েছে, ওই অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারী ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রয়াত ক্যাপ্টেন পবন কুমারের বোন। নিজেকে আইআইটি মুম্বাইয়ের রিসার্চ স্কলার দাবি করেছেন ওই নারী। এছাড়া ২০১৪ সালে এনটিএসই এবং ২০১৬-তে আইআইটি জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় পাস করেন বলে উল্লেখ করা হয়।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে হানি ট্র্যাপের খপ্পরে পড়েন রাজস্থানের জয়সলমেঢ় জেলার আর্মর্ড কর্পসের সিপাই সোমভীর সিং। তদন্তে জানা যায়, পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই) ওই হানি ট্র্যাপ ব্যবহার করেছিল।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেনা সদস্যেদের পরিচয় প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা জানানো হয়। সতর্ক বার্তায় বলা হয়, সৈনিক থেকে শুরু করে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পরিচয়, র‌্যাংক, পোস্টিং এবং অন্যান্য প্রফেশনাল বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা যাবে না। সেই সঙ্গে ইউনিফর্ম পরিহিত ছবিও পোস্ট করা যাবে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা