kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

'জয় শ্রীরাম' না বলায় ট্রেনে মুসলিম তরুণকে মারধর, পরে গলাধাক্কা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৯ ১৩:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'জয় শ্রীরাম' না বলায় ট্রেনে মুসলিম তরুণকে মারধর, পরে গলাধাক্কা

প্রতীকী ছবি

ভারতে হিন্দুত্ববাদীদের উগ্র আচরণ বেড়ে গেছে অনেকটাই। অনেকস্থানে 'জয় শ্রীরাম' বলতে বাধ্য করা হচ্ছে মুসলিমদের।  এবার উত্তরপ্রদেশ বা বিহার নয় কলকাতায় আক্রমণের শিকার হয়েছেন এক মুসলিম তরুণ। এ ঘটনা ঘটেছে কলকাতার পার্ক সার্কাসে।'জয় শ্রীরাম' বলতে রাজি না হওয়ায় এক মুসলিম তরুণকে চলন্ত ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। 

জানা গেছে,আক্রমণের শিকার ওই তরুণ পেশায় একজন মাদ্রাসা শিক্ষক। তার অভিযোগ, চলন্ত ট্রেনে তাকে 'জয় শ্রীরাম' বলতে জোরাজোরি শুরু করে একদল যুবক। কিন্তু তিনি এতে সম্মত হননি। এ কারণে তাকে চলন্ত ট্রেন থেকেই ফেলে দেওয়া হয়। 

পুলিশ বলছে, ওই তরুণ আহত হয়েছেন। এ ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে ঘটনার নেপথ্যে 'জয় শ্রীরাম' বলতে অস্বীকার করা নাকি অন্য কোনও কারণ রয়েছে সে বিষয়ে সংশয় রয়েছে তদন্তকারীদের।

জানা গেছে,  ওই তরুণ দক্ষিণ ২৪ পরগণার বাসিন্দা; নাম হাফিজ মোহাম্মদ শাহরুখ হালদার। গত বৃহস্পতিবার তিনি হুগলি যাওয়ার উদ্দেশে ট্রেনে রওনা দিয়েছিলেন। 

শাহরুখের অভিযোগ, কলকাতা যাওয়ার পথে একদল লোক তার উপর চড়াও হয়।  চলন্ত ট্রেনে একদল লোক 'জয় শ্রীরাম' ধ্বনি দিচ্ছিলেন। ট্রেন ঢাকুরিয়া থেকে ছেড়ে যাওয়ার পর হঠাৎই ওই দলটির কয়েকজন সদস্য তাকে 'জয় শ্রীরাম'[ বলার জন্য চাপ দেওয়া শুরু করে। কিন্তু তিনি এতে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করা হয়। ট্রেনে কামরাভর্তি লোকের সামনে তাকে মারধর করা হলেও কেউ তার সাহায্যে এগিয়ে আসেননি। অবশেষে পার্ক সার্কাস স্টেশনে তাকে নামিয়ে দেওয়া হয়।

শাহরুখ জানান, পার্ক সার্কাস স্টেশনে নামার পর স্থানীয়রা তার সাহায্যে এগিয়ে আসেন। তাদের সাহায্যেই হাসপাতালে যান তিনি। প্রথমে তিনি তপসিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করতে যান। কিন্তু সেখান থেকে জানানো হয়, তাকে জিআরপি'র কাছে অভিযোগ জানাতে হবে। 

এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, ওই তরুণ সামান্য আহত হয়েছিলেন। তাকে চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়। পুলিশের ধারণা, 'জয় শ্রীরাম' স্লোগান দিতে অস্বীকার করায় নয়, বরং জায়গা দখল নিয়ে ঝামেলার জেরে চলন্ত ট্রেনে তার ওপর হামলা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও কয়েকজন আহত হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। 

মন্তব্য