kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

ধর্ষণ-নিপীড়ন বন্ধে গরু পুজা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ জুন, ২০১৯ ১৩:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণ-নিপীড়ন বন্ধে গরু পুজা!

গরু পূজা

ভারতে আশঙ্কাজনকভাবে নারী নিপীড়ন, খুন এবং ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে গেছে। এমন কোনো দিন নেই যেদিন দেশটিতে এ ধরনের ঘটনা ঘটে না। শুধু তাই নয়, প্রতি ১৫ মিনিটে ভারতের কোনও না কোনও শিশু যৌন হেনস্তার শিকার হচ্ছে। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশে দু'মাসের শিশুকে ধর্ষণ ও খুন এবং  চার বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনাও ঘটেছে। এসব ঘটনায় প্রতিবাদ হচ্ছে কিন্তু প্রতিকার হচ্ছে না। এদিকে ধর্ষণ-নিপীড়ন বন্ধ করতে ভিন্ন পথ বেছে নিয়েছেন হায়দরাবাদের চিলকু বালাজি মন্দিরের পণ্ডিতেরা। তাঁরা এগুলা বন্ধে গরুর পূজা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। 

ধর্ষণ-নিপীড়ন বন্ধ করতে বালাজি মন্দিরের পণ্ডিতেরা এবার উঠে পড়ে লেগেছেন। তবে আইনি পথে না গিয়ে তাঁরা পুজার পথ বেছে নিয়েছেন। তা-ও আবার গোমাতাকে পুজা করার পথে। 

মন্দিরের পণ্ডিতদের দাবি, একমাত্র ভগবানই। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা নারী জাতির প্রতি অত্যাচার, ধর্ষণ, খুনের ঘটনা বন্ধ করতে পারেন। গরুকে পুজা করার মধ্যে দিয়েই ভগবানের সাহায্য পাওয়া এবং এসব ঘটনা থামানো সম্ভব।

এ বিষয়ে চিলকু বালাজি মন্দিরের পন্ডিত রঙ্গ রজন বলছেন, গোমাতাকে পুজ করার মধ্যে দিয়েই আমরা সমস্ত সমস্যার সমাধান করতে পারি। এই মন্দিরের চার পাশে তিনটে গরুকে প্রদক্ষিণ করিয়ে এই পুজার সমাপ্তি টানবো। 

তিনি জানান, ভারতের শিক্ষা ব্যবস্থা অতি প্রাচীন। প্রাচীন ভারতে এই ধরনের ঘটনা একেবারেই ঘটতো না। এখন পাশ্চাত্য সংস্কৃতির সঙ্গে মেলবন্ধন ঘটার ফলেই আজ ভারতে এতো বেশি ধর্ষণ, খুনের ঘটনা ঘটে। এখন ভারতে শিশুরা একেবারেই সুরক্ষিত নয়। এ ধরনের ঘটনা বন্ধ করতেই গরু পুজা শুরু করেছেন তাঁরা।

সূত্র : দ্য ওয়াল 

মন্তব্য