kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ আগস্ট ২০১৯। ৮ ভাদ্র ১৪২৬। ২১ জিলহজ ১৪৪০

‘নিম্ন’ বর্ণের ছেলের সঙ্গে প্রেম, বিয়ে; অতঃপর গুলি করে হত্যা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জুন, ২০১৯ ১৮:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘নিম্ন’ বর্ণের ছেলের সঙ্গে প্রেম, বিয়ে; অতঃপর গুলি করে হত্যা

সব ভালোবাসা পরিণতি পায় না। সবার জীবনেই থেকে যায় এমন কিছু সম্পর্ক, এমন কিছু ঘটনা, যা বার বার মনে ফিরে এসে কষ্ট দেয়। আর ভালোবাসার কষ্টকে দূরে রাখতে পরিবারের মতের বাইরে গিয়ে বিয়ে করেছিলেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের বুলবুল ও কুলদীপ। কিন্তু থাকতে পারেননি একসাথে। গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বুলবুলকে। 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাওয়াধ গ্রামের বুলবুল ও কুলদীপের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই প্রেমকে আরো পরিণতি দিতে ছয় মাস আগে তারা বিয়ে করেছিলন। কিন্তু বুলবুলের বাড়ির লোকজনের এই বিয়েতে মত ছিল না। কারণ, কুলদীপের ‘জাত’ বুলবুলের থেকে আলাদা। বুলবুলের বাড়ির লোকে চোখে সে তথাকথিত ‘নিম্ন’ বর্ণের।

বুলবুলের বাড়ির লোকজনের অমতেই বিয়ে করেন তারা। যদিও বিয়ে করে ওই গ্রামে থাকা সম্ভব হয়নি তাদের পক্ষে। স্বাভাবিকভাবেই বাইরে থাকছিলেন তারা। বিয়ের পর গত শনিবার প্রথমবারের জন্য নিজের বাড়িতে এসেছিলেন ২১ বছর বয়স্ক বুলবুল। কিন্তু ভিন জাতের ছেলেকে বিয়ে করার জন্য তার উপর বাড়ির লোকদের ক্রোধ কমেনি। তাই বাড়ির ফেরার পরই বুলবুলকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় তার ১৭ বছরের ভাই। সেই গুলি বুলবুলের মাথায় লাগে।

তার পর বুলবুলকে ইনদওর মহারাজা যশবন্ত রাও হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এই ঘটনার পর তার ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় পুলিশ।

স্থানীয় পুলিশ অফিসার রামকুমার রাই বলেন, বুলবুল ও কুলদীপ দু’জনেই রাওয়াধ গ্রামের বাসিন্দা। বিয়ের পর শনিবার বাড়ি এসেছিল বুলবুল। তখনই তার ভাই গুলি করে তাকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা