kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

আজীবন হোয়াইট হাউসে থাকতে চান ট্রাম্প!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জুন, ২০১৯ ১৬:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আজীবন হোয়াইট হাউসে থাকতে চান ট্রাম্প!

চীনের প্রেসিডেন্ট সি জিনপিংয়ের মতোই আজীবন ক্ষমতায় থাকার সুপ্ত বাসনা পোষণ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মাঝে মধ্যেই আকারে-ইঙ্গিতে সেটা প্রকাশ করেন তিনি। এ নিয়ে শুক্রবার এক টুইটাবার্তায় অনেকটা কৌতুকের ছলে আবারও নিজের সেই কথা জানালেন।

তিনি জানিয়েছেন, একবার বা দুবার নয়, সারাজীবনের জন্য হোয়াইট হাউসে থাকতে চান তিনি। 

ট্রাম্প জানান, তিনি ২০১৭ সালে বেইজিং সফরে গিয়ে জিনপিংকে 'চীনের রাজা' বলে সম্বোধন করেছিলেন। সেই সম্বোধনে বেশ আনন্দিত হয়েছিলেন একদলীয় শাসনাধীন চীনা প্রেসিডেন্ট। 

ট্রাম্প বলেন, আমি রাজা হিসেবে সম্বোধন করায় জিনপিং প্রথমে বলেছিলেন, 'আমি তো রাজা নই, আমি প্রেসিডেন্ট। তখন আমি বলেছিলাম, আপনি হলেন আজীবন প্রেসিডেন্ট, তাই আপনাকে রাজা বলা যেতেই পারে। এর জবাবে মৃদু হেসে তিনি 'হুঁ' বলেন।

এর এক  বছর পরে ফ্লোরিডা রাজ্যে রিপাবলিকান পার্টির জন্য অর্থদাতাদের সাথে এক বৈঠক করার সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, চীনা প্রেসিডেন্ট যে নিজেকে আজীবন প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করতে পেরেছেন এটা একটা দারুণ ব্যাপার।

এ কথার পর ট্রাম্প বলেন, হয়তো আমরাও একদিন এ রকম কিছু একটা করার চেষ্টা করব। সে সময় ট্রাম্পের এই মন্তব্য প্রচার করে সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

সিএনএন জানায়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এমন কিছু মন্তব্যের রেকর্ডিং তাদের হাতে রয়েছে।

ট্রাম্পের এই উক্তির রেকর্ডিংটি প্রচারও করেছে সিএনএন। সেখানে ট্রাম্পকে বলতে শোনা গেছে, আমাদেরও হয়তো একদিন এ রকম কিছু করতে হবে।

ট্রাম্প একথা বলার পর তুমুল হাসির রোল এবং করতালির শব্দ শোনা যায়।

এবার টুইটারবার্তায় মার্কিনিদের নিজের মনোবাসনার কথা জানিয়েছেন ট্রাম্প। মেমেটি গত বছরের টাইম ম্যাগাজিনের কাভারের ওপর গ্রাফিক্সের কাজ করে তৈরি করা। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য পোস্টার হিসেবে এটা প্রকাশ করা হয়েছে। যার মেয়াদ ২০২০ সাল থেকে নয় বরং শুরু হয়েছে ২০২৪ সাল থেকে।

এরপর প্রতি চার বছর পরপর ধারাবাহিকভাবে এটা এগিয়ে গেছে। ২০৪৮ সালে গিয়ে পোস্টারের ওপরের দিকে ডায়াসের সামনে দাঁড়ানো ট্রাম্পের একটি অ্যানিমেশন ছবি মুচকি হাসছে। কিন্তু তারপরই প্রেসিডেন্টের ক্ষমতার মেয়াদের ব্যাপারটা দ্রুতই বদলাতে থাকে। প্রথমে চার বছর অন্তর অন্তর মেয়াদ বদলালেও পরে সেটা শতক ও হাজারের সংখ্যায় বদলায়। ৯ হাজার সংখ্যায় হঠাৎ ভেসে ওঠে 'ট্রাম্প ফরএভার' অর্থাৎ 'চিরতরে ট্রাম্প'।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা