kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

মুরসির দাফন হলো গোপনেই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জুন, ২০১৯ ১৪:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুরসির দাফন হলো গোপনেই

কারাগারে মুরসি

মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং মুসলিম ব্রাদারহুডের নেতা মোহাম্মদ মুরসি গতকাল আদালতে বিচার চলাকালে মারা যান। এদিকে কায়রোতে মুরসিকে গোপনে দাফন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুরসির ছেলে আহমেদ মুরসি। মঙ্গলবার নিজের ফেসবুকে এক পোস্টের মাধ্যমে এ কথা জানান তিনি। 

আহমেদ মুরসি জানিয়েছেন, তারা বাবাকে মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রাক্তন নেতাদের পাশে তাকে দাফন করা হয়েছে। 

তিনি জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে মুরসির নিজ শহর সারকিয়া প্রদেশে তার দাফনের আবেদন জানানো হয়েছিল। এই আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে কর্তৃপক্ষ। তাকে কায়রোর নাসার এলাকায় দাফন করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

আহমেদ বলেছেন, টোরা কারা-হাসপাতালে তাকে গোসল করিয়েছি। জানাজার নামাজ আদায় করে তাকে দাফন করা হয়েছে।

এদিকে, কর্তৃপক্ষ এবং মেডিকেল সূত্র জানিয়েছে, সোমবার আদালতে মামলার শুনানির সময় মোহাম্মদ মুরসি বিচারকের সঙ্গে কথা বলার অনুমতি চাইলে তাকে অনুমতি দেয়া হয়। প্রায় ২০ মিনিট বক্তব্য রাখার পর হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হন মুরসি।

সে সময় তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে মুরসীর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। 

প্রসঙ্গত, মিসরে প্রথমবারের গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ছিলেন মোহাম্মদ মুরসি। ২০১১ সালে দেশটিতে ব্যাপক সহিংসতার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় মুরসির বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয় আদালত। পরে তা বাতিল করে পুনর্বিচারের আদেশ দেয়া হয়।

চার বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেও মাত্র এক বছরের মাথায় সেনা অভ্যুত্থানের মুখে ২০১৩ সালে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেন মুরসি। পরে মিসরের এই প্রেসিডেন্টের রাজনৈতিক দল মুসলিম ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা