kalerkantho

সোমবার । ২২ জুলাই ২০১৯। ৭ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৮ জিলকদ ১৪৪০

বোনের বিয়েতে ছুটি না পাওয়ায়...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৯ ১৬:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বোনের বিয়েতে ছুটি না পাওয়ায়...

প্রতীকী ছবি

ভারতজুড়ে চিকিৎসকদের ধর্মঘট চলছে। আর এর মধ্যেই ঘটেছে একটি মর্মান্তিক ঘটনা। বোনের বিয়েতে ছুটি পাননি এক তরুণ চিকিৎসক। তাই   রাগে-দুঃখে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। 

জানা গেছে, ওই চিকিৎসকের নাম ওঙ্কার। বয়স ৩০ বছর। বাড়ি কর্নাটক রাজ্যের ধারওয়াড়ে। বৃহস্পতিবার রাতে কলেজের হোস্টেল থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়।

হরিয়ানার রোহতকের পিজি ইন্সস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্স প্রতিষ্ঠানে মেডিসিনের ওপর পড়াশোনা করছিলেন ওঙ্কার। পড়াশোনার পাশাপাশি রোগী দেখার মতো হাড়ভাঙা পরিশ্রম করতে হতো তাকে। সহজে ছুটি পেতেন না তিনি। 

সম্প্রতি তার একমাত্র বোনের বিয়ে ঠিক হয়। আশা করেছিলেন, বোনের বিয়েতে বাড়ি যাবেন, আনন্দ ফূর্তি করবেন। কলেজের বিভাগীয় প্রধানকে অনেক দিন আগে থেকেই ছুটির কথা বলে রেখেছিলেন। গত বুধবার ছিল তার বোনের বিয়ে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ছুটি বাতিল করেন বিভাগীয় প্রধান। রাগে, দুঃখে, অপমানে আত্মহত্যা করেন ওঙ্কার।

এ ঘটনায় পুলিশে এফআইআর করেছেন ওই ইনস্টিটিউটের ৩২ জন ছাত্র। তাদের দাবি, বিভাগীয় প্রধান গীতা গাঠওয়ালার হাতে হেনস্থা সহ্য না করেই আত্মহত্যা করেছেন ওঙ্কার। ঘটনার তদন্তে নেমেছে রোহতক থানার পুলিশ।

থানার ওসি জানান, গীতা গাঠওয়ালার বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার মামলা রুজু করা হয়েছে। যদিও এখনও তাকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। ঘটনার পরের দিন তাকে সাসপেন্ড করেছেন পিজিআইএমএস কর্তৃপক্ষ। একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিকে দিয়ে গোটা ঘটনার তদন্ত করানো হবে বলে জানিয়েছেন ইনস্টিটিউটের ভাইস চ্যান্সেলর ও পি কালরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা