kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

পশ্চিমবঙ্গে মমতার বাঁচোয়া, বামের ভোট ‘রামে’

অনিতা চৌধুরী, কলকাতা    

২৪ মে, ২০১৯ ০৮:৪০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পশ্চিমবঙ্গে মমতার বাঁচোয়া, বামের ভোট ‘রামে’

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির অভূতপূর্ব সাফল্যের পেছনে এমন কারণ আছে, যা যেকোনো বাম মনোভাবাপন্ন মানুষকে পীড়া দেবে। এবারের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির পাওয়া ভোটের হার ৪০ শতাংশের ওপরে পৌঁছেছে। ভোটে বিজেপিসহ অন্যান্য দলের প্রাপ্ত ভোটের হার খুঁটিয়ে দেখলে বোঝা যাবে, বিজেপির অভাবনীয় সাফল্যের প্রধান কারণ হলো, বাম দলগুলোর ধারাবাহিক ব্যর্থতা। তাদের দিক থেকে ভোটারদের মুখ ফিরিয়ে নেওয়া।

‘২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে বাম দলগুলো প্রায় ৩০ শতাংশ ভোট পেয়েছিল, যা এবার  কমে ৭ শতাংশের কাছাকাছি নেমেছে। অন্যদিকে বিজেপির প্রাপ্ত ভোটের হার ২০১৪ সালে ছিল ১৭ শতাংশ, যা এবার বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪০ শতাংশ’—বলেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিশ্বনাথ চক্রবর্তী। এই তথ্য থেকে স্পষ্ট হয়, বিজেপির যে ২৩ শতাংশ ভোট বেড়েছে, তার প্রায় পুরোটাই এসেছে বাম দলগুলো থেকে ভোটাররা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায়। কারণ তাদের প্রাপ্ত ভোটের হার  কমেছে প্রায় ২২ শতাংশ।

বামের ভোট এভাবে ‘রামের দলের’ দিকে চলে যাওয়া হচ্ছে এবারের লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গের সব থেকে উল্লেখযোগ্য বিষয়।

প্রচারণার সময়ে অনেক বিশ্লেষক এই সম্ভাবনার কথা বলেছিলেন। কিন্তু  বাম দলগুলো সেই সম্ভাবনার কথা প্রায় উড়িয়ে দিয়েছিল। তাদের বক্তব্য ছিল, বাম ভোট কখনোই বিজেপির দিকে যেতে পারে না। কিন্তু নির্বাচনের ফলাফল দেখে বোঝা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গে বাম দলগুলোর প্রতি  মানুষের সমর্থন প্রায় তলানিতে এসে ঠেকেছে। এবার পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে একটিতেও বাম প্রার্থী জেতেননি।

বাম দলগুলোর ভোট বিজেপিতে কেন গেল, তা  নিয়ে  অনেক  যুক্তি  দিচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তৃণমূলের জামানায় বাম দলগুলো তৃণমূলের দ্বারা অত্যাচারিত হওয়ায় বাম সমর্থকরা তৃণমূলের সঙ্গে  টেক্কা  দিতে পারে—এমন কোনো দল খুঁজচ্ছিল। বিজেপি যেহেতু  কেন্দ্রে ক্ষমতায় আছে, তাই অনেক মানুষ বিজেপিকে বেছে নিয়েছে—বলেন এক পর্যবেক্ষক।

এ ছাড়া অন্য কারণ আছে, তার একটি হলো ধর্মের ভিত্তিতে মেরুকরণ। প্রচারণার সময়ে বিজেপি নেতারা মমতাকে বারবার  ‘মুসলিম তোষণের’ কারণে আক্রমণ করেন এবং নির্বাচনে তার প্রভাব পড়ে।

‘প্রচারণায় মমতা যেহেতু নরেন্দ্র মোদিকে আক্রমণ করেছেন, তাই  মুসলমান সম্প্রদায়ের মধ্যে তাঁর জনপ্রিয়তা বেড়েছে। আর তার ফলে যে মুসলমানরা এত দিন বাম দলগুলোকে সমর্থন করত, তারা তৃণমূলে  চলে গেছে—এই ধর্মের মেরুকরণের ফায়দা তুলেছে বিজেপি। কারণ  হিন্দু ভোটের বেশির ভাগ পেয়েছেন বিজেপির প্রার্থীরা’—বলেন এক  বিশ্লেষক। ধর্মের ভিত্তিতে এই মেরুকরণ পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতির ভবিষ্যতের জন্য ভালো  নয়—এ কথাও বলছেন বেশির ভাগ বিশ্লেষক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা