kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৮ জুন ২০১৯। ৪ আষাঢ় ১৪২৬। ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

গর্ভের সন্তান কন্যা জেনে বিশ্বে দুই কোটি ৩০ লাখ শিশু হত্যা করা হয়েছে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মে, ২০১৯ ২০:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গর্ভের সন্তান কন্যা জেনে বিশ্বে দুই কোটি ৩০ লাখ শিশু হত্যা করা হয়েছে

বর্তমান সময়ে বিশ্বের অনেক পরিবারই ছেলে সন্তানদের প্রাধান্য দিচ্ছে। তাই পেটের সন্তান কন্যা জেনে অধিকাংশ পরিবারগুলোই গর্ভপাত করে হত্যা করছে কন্যা শিশুকে। 

নতুন এক গবেষণায় দাবি করা হচ্ছে, লিঙ্গ-নির্বাচনী গর্ভপাতের ফলে বিশ্বব্যাপী দুই কোটি ৩০ লাখেরও বেশি কন্যা শিশু নিহতে হয়েছে।

সিঙ্গাপুরের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের করা এই গবেষণায় বলা হচ্ছে, নতুন বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন যে, লিঙ্গ-নির্বাচনী গর্ভপাত সহজলভ্য হয়ে ওঠে ১৯৭০ সালের দিকে। এর ফলে সারা বিশ্বে আধিপত্য বিস্তার করে ছেলে শিশুর জন্ম। ওই ঘটনা সবচেয়ে বেশি দেখা যায় চীন ও ভারতে।

এই গবেষণায় তাঁরা দু’শ দুইটি দেশের তথ্য বিশ্লেষণ করেন। ১৯৭০ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত সময়ের তথ্য নিয়ে এই গবেষণা করেন তাঁরা। 

আলবেনিয়া, আর্মেনিয়া, আজারবাইজান, চীন, জর্জিয়া, হংকং, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া, মন্টেনিগ্রো, তাইওয়ান, তিউনিসিয়া ও ভিয়েতনামে ছেলে শিশু জন্মের আধিক্য দেখা গেছে। আর শুধুমাত্র চীনেই শতকারা ৫১ ভাগ (১১ দশমিক ৯ মিলিয়ন) মেয়ে শিশুকে গর্ভপাতের মাধ্যমে হত্যা করা হয়েছে। আর এর পরেই রয়েছে ভারতের অবস্থান। ভারতে ১০ দশমিক ৬ মিলিয়ন শিশুকে গর্ভপাতের মাধ্যমে হত্যা করা হয়। 

গবেষকরা জানান, গত কয়েক দশক ধরে বিশ্বের কিছু দেশে গর্ভপাতের মাধ্যমে মেয়ে শিশুদের হত্যা করা হচ্ছে। তাতে কারে শিশু জন্মের ভারসাম্যহীনতা দেখা দিয়েছে।

এ ছাড়াও ২০১৬ সালে শিশু জন্মের ভারসাম্যহীনতা নিয়ে একটি গবেষণা করেন টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক প্রভাহাত জাহা। তিনি ভারতের ১১ লাখ পরিবারের মধ্যে এই গবেষণা পরিচালনা করেন। এ সময় তিনি জানান, গর্ভপাতের মাধ্যমে ১০ লাখ মেয়ে শিশুকে হত্যা করা হয় ভারতের ওই পরিবারগুলোতে।

সূত্র: ক্রিস্টিয়ান ইনস্টিটিউট 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা