kalerkantho

বুধবার । ২৬ জুন ২০১৯। ১২ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে এইচআইভি আতঙ্ক, আক্রান্ত পাঁচ শতাধিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মে, ২০১৯ ২১:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে এইচআইভি আতঙ্ক, আক্রান্ত পাঁচ শতাধিক

স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরীক্ষা করাতে আসা মানুষের ভিড়।

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে হঠাৎ করেই এইআইভি সংক্রমণের শিকার হয়েছেন পাঁচশোরও বেশি মানুষ। সংক্রমিতদের মধ্যে অধিকাংশই শিশু। এই সংক্রমণের খবর পাওয়ার পরই হাজার হাজার স্থানীয় মানুষ জড়ো হয়েছেন স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে। 

মাত্র কয়েক সপ্তাহের পরীক্ষায় এ সংখ্যা বেরিয়ে এসেছে বলে সাংবাদিকদের জানান পাকিস্তানের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। স্বাস্থ্য বিভাগ পুলিশের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করলে লারকান পুলিশ সেখানকার সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক মুজাফফর ঘাংরোকে গ্রেপ্তার করেন।

তার বিরুদ্ধে এইচআইভি দূষিত সিরিঞ্জ ব্যবহার করে ‘৯০ জন রোগীর’ শরীরে এইডসের জীবাণু ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছে, ‍যিনি নিজেও এইচআইভি সংক্রমিত।

যে কোনও সময় বড় ধরনের এইচআইভির সংক্রমণ দেখা দিতে পারে, এই আশঙ্কা সব সময়ই ছিল পাকিস্তানকে ঘিরে। এটি ছড়িয়ে পড়ছিল যৌন কর্মী ও ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে। ২০১৭ সালে পাকিস্তানে ২০,০০০ এইডস রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়। বর্তমানে এটি এশিয়ার দ্বিতীয় দেশে যেখান লাফিয়ে বাড়ছে এইডস।

প্রদেশটির এইডস কন্ট্রোল প্রোগ্রামের ম্যানেজার সিকান্দার মেনন বলেন, টাকা বাঁচাতে গিয়ে ‘হাতুড়ে’ ডাক্তাররা অনেক সময়ই একটি সিরিঞ্জ দিয়ে অনেক রোগীকে ইঞ্জেকশন দিয়ে থাকে। এইআইভি বা এইডস ছড়ানোর অন্যতম প্রধান কারণ এটাই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা