kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

বিশ্বে এই প্রথম সশস্ত্র উভচর ড্রোন বোট বানালো চীন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১৬:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বে এই প্রথম সশস্ত্র উভচর ড্রোন বোট বানালো চীন

এর নাম দেয়া হয়েছে মেরিন লিজার্ড

সশস্ত্র উভচর ড্রোন বোট বানিয়েছে চীন। চীনই হলো বিশ্বের প্রথম কোনো দেশ যারা এ ধরণের  ড্রোন বোট বানিয়েছে। চায়না শিপবিল্ডিং ইন্ডাস্ট্রি কর্পোরেশনের (সিএসআইসি) অধীনে উচাং শিপবিল্ডিং ইন্ডাস্ট্রি গ্রুপ এটি নির্মাণ করেছে। এর নাম দেয়া হয়েছে মেরিন লিজার্ড। 

জানা গেছে, নতুন এই প্রযুক্তি স্থল অভিযানে ব্যবহার করা হতে পারে। এ ছাড়া এটা ড্রোন বিমান এবং ড্রোন জাহাজের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে ত্রিমুখি শক্তি হিসেবে কাজ করতে সক্ষম। জাহাজের আকারে তৈরি ১২ মিটার দীর্ঘ এই মেরিন লিজার্ড ডিজেলের হাইড্রোজেট দ্বারা পরিচালিত। এটি নিজের অবস্থান লুকিয়ে রেখে ৫০ নট গতিতে ছুটতে পারে। 

এই উভচর ড্রোন শরীরে লুকানো চারটি ট্রাকিং ইউনিট বের করে আনতে পারে। এটা ঘন্টায় ২০ কিলোমিটার গতিতে চলতে পারে। মেরিন লিজার্ডে একটি ইলেক্ট্রো-অপটিক্যাল সিস্টেম এবং একটি রাডার সিস্টেম রয়েছে। অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে দুটি মেশিন গান এবং একটা ভার্টিক্যাল লাঞ্চিং সিস্টেম, যেটা দিয়ে বিমান বিধ্বংসী মিসাইল নিক্ষেপ করা যায়। এটা নিজ থেকে চলতে পারে; বাধা চিহ্নিত করে সেগুলো এড়িয়ে যেতে পারে।

একজন সামরিক বিশেষজ্ঞ জানান, এই উভচর ড্রোন বোটগুলো দ্বীপে প্রাথমিক অভিযান চালানোর উপযোগী। পদাতিক বা বিমান হামলার আগে এই ড্রোন দিয়ে প্রাথমিক হামলা চালানো যেতে পারে। 

তিনি বলেন, সাগর থেকে স্থলের দিকে এগিয়ে যাওয়া কঠিন কাজ। কিন্তু মেরিন লিজার্ডে কোন মানুষ না থাকায় এটাকে কাজে লাগিয়ে প্রাথমিকভাবে শত্রুর সীমায় ঢুকে তাদের অবস্থান চিহ্নিত করা সম্ভব এবং প্রাথমিক প্রতিরোধ গড়া সম্ভব। এ সময়টাকে কাজে লাগিয়ে পরে পদাতিক বাহিনী সেখানে প্রবেশ করতে পারে।

জানা গেছে, এই মেরিন লিজার্ডের অভিযান ক্ষমতা ১২০০ কিলোমিটার পর্যন্ত। এগুলো দূর থেকে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখেই এটা তৈরি করা হয়েছে। 
              

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা