kalerkantho

সোমবার । ২১ অক্টোবর ২০১৯। ৫ কাতির্ক ১৪২৬। ২১ সফর ১৪৪১       

ব্রিটেনে সরকারদলীয় তিন এমপির পদত্যাগ

জুয়েল রাজ, লন্ডন থেকে   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৪:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রিটেনে সরকারদলীয় তিন এমপির পদত্যাগ

ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে মতপার্থক্যের কারণে ব্রিটেনের সরকারদলীয় রাজনৈতিক পার্টি কনজার্ভেটিভ পার্টি থেকে পদত্যাগ করেছেন তিন ব্রিটিশ এমপি।     

লেবারদলীয় নেতা জেরিমি করভিনের ওপর ব্রেক্সিট নীতি ও ইহুদি বিদ্বেষের অভিযোগ তুলে ৮ লেবার এমপির দলত্যাগের পর এবার প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে'র বিরুদ্ধে বিপর্যয়কর ব্রেক্সিট নীতি ফলো করার অভিযোগ তুলে দল ত্যাগ করলেন এ আন্না সিব্রি, হেইডি অ্যালোন ও সারা উললস্টন নামের তিন টোরি এমপি। দলত্যাগী এই তিন টোরি এমপি যোগ দেবেন লেবারত্যাগী ৮ ইন্ডিপেন্ডেন্ট গ্রুপ এমপির সাথে, যারা নতুন একটি রাজনৈতিক দল গড়ার পরিকল্পনা করছেন।

বুধবার সকালে টোরি এমপি আন্না সিব্রি, হেইডি অ্যালোন ও সারা উললস্টন নিজেদের দল ত্যাগের ঘোষণা দিয়ে থেরেসা মে বরাবরে লিখিত পদত্যাগ পত্রে লিখেন, ‘আমরা মনে করি, এমন একটি সরকারের দলে আমাদের থাকা উচিত নয়। যে সরকারের নীতি ও অগ্রাধিকার পরিচালিত হয় ইউরোপীয়ান রিসার্চ গ্রুপ (ইআরজি) এবং ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিস্ট পার্টির (ডিইউপি) ইচ্ছেয়’। তারা বলেন, ‘পার্টিকে আধুনিক করার সকল সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও ব্রেক্সিট কনজারভেটিভ পার্টিকে নতুন করে সজ্ঞায়িত করছে।’ দল নিজস্ব নীতিতে শক্তভাবে দাঁড়াতে ব্যর্থ হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে দলত্যাগী এমপিরা বলেন, ‘দলের অভ্যন্তরে দল হিসেবে কনজারভেটিভ পার্টির ওপর চাবুক চালাচ্ছে ইআরজি।’

তারা বলেন, ‘পার্টির ওপর চূড়ান্ত খড়্গ হলো সরকারের বিপর্যয়কর ব্রেক্সিট ডিল’।

প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ৩ দলীয় এমপির দল ত্যাগে দুঃখ পেয়েছেন এমন মন্তব্য করে বলেন, ‘পার্টি অগ্রযাত্রায় এই তিন এমপির ব্যাপক অবদান রয়েছে। এই অবদানের জন্য আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই।

এদিকে, ‘রাইট টু ভোট’ ক্যাম্পেইনার ফিলিপ লি-ও দল ত্যাগ করছেন, এমন একটি বিদ্বেষের অভিযোগে দলটি থেকে পদত্যাগ করেন ৭ লেবার দলীয় এমপি। পরবর্তীতে তাদের সাথে যোগ দেন আরো একজন।

দলত্যাগ করা মোট ৮ লেবার এমপি হলেন চুকা উমুন্না, লুসিয়ানা বার্জার, ক্রিস লেসলি, অ্যাঞ্জেলা স্মিথ, মাইক গিপস, গেভিন শুকার, অ্যান কফি ও জোয়ান রায়ান।

দুই দলের পদত্যাগী এই ১১ এমপি এখন নতুন একটি রাজনৈতিক দল গড়ার পথে এগোচ্ছেন এমন আলোচনাই চলছে ব্রিটিশ রাজনীতির অঙ্গনে। লেবার দলের অনেক এমপি পদত্যাগ করবেন বলেও মনে করছেন অনেকে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা