kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সৌদি আরবে নির্যাতিতা বাংলাদেশি নারীর বাঁচার আকুতি ভাইরাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৌদি আরবে নির্যাতিতা বাংলাদেশি নারীর বাঁচার আকুতি ভাইরাল

সৌদি আরবে এক নির্যাতিতা বাংলাদেশি নারীর বাঁচার আকুতির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে ওই নারী বলছেন, আমি মনে হয় আর বাঁচবো না, আমি মনে হয় মরেই যাব। আমি এখানে খুবই কষ্টে আছি। আমি চোখে কিছু দেখতে পাচ্ছি না। আমি জানি না এখান থেকে কি করে রক্ষা পাব। আমার আগের বাসায় অনেক নির্যাতন করেছে। ১৫ দিন এক ঘরে আটকে রেখে নির্যাতন করেছে, কিছু খেতে দেয়নি। ওখান থেকে আরেক জায়গায় পাঠিয়েছে সেখানেও নির্যাতন করা হচ্ছে। আমারকে গরম তেল দিয়ে হাত পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আমারকে বেঁধে মারধর করা হয়েছে। আমাকে বাঁচাও। আমাকে এখান থেকে নিয়ে যাও। না হলে আমি মরেই যাব। 

তিনি আরও বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের অফিসে আক্তারের কাছে ফোন দিয়েছিলাম। সে আমার সাথে উল্টা-পাল্টা খারাপ কথা কই। আমি হাবিবের কাছে ফোন দিয়েছিলাম, সেও উল্টা-পাল্টা খারাপ কথা কই। আমি তাদের কাছে সাহায্য চাইছি। কিন্তু তারা আমাকে সাহায্য করছে না। আমি চুরি করে টয়লেট থেকে কথা বলছি। আমাকে নিয়ে যাও, আমাকে বাঁচাও নয়তো আমি মরে যাব।’

ধারণা করা হচ্ছে, তার কোনো নিটকাত্মীয় ফোনে কথাগুলো বলছিলেন ওই নারী। ভিডিওতে ওই নারী কোন দেশ থেকে এই কথাগুলো বলছিলেন তা জানা যায়নি। তবে নেটিজেনদের কমেন্ট থেকে ধারণা করা হচ্ছে, ওই নারী সৌদি আরব থেকে কথাগুলো বলছিলেন।

ভাইরাল ভিডিওতে এক ব্যক্তি লিখেছেন, ওই নারীর নাম নাজমা বেগম। তিনি গত ২ সেপ্টেম্বর নির্যাতনের মুখে সৌদি আরবে মারা যান। গত ২৪ অক্টোবর তার লাশ এসেছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা