kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

১৩ কারণে জীবনটা 'নষ্ট' হবে আহমেদাবাদে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ নভেম্বর, ২০১৮ ১৫:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৩ কারণে জীবনটা 'নষ্ট' হবে আহমেদাবাদে

সবরমতি নদী

আপনি কি বেশ কিছু সময়ের জন্যে আহমেদাবাদ যাচ্ছেন? ধরুন, কোনো পড়াশোনার ডিগ্রি নিতে বা কোনো কারণে বেশ কিছু দিনের জন্যে সেখানে থাকতে যাচ্ছেন? পশ্চিম ভারতের এই শহরে যারা যাবেন তাদের পারলে সারাজীবনের জন্যে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন অনেকে। ওখানে একবার গেলে সর্বনাশ ঘটে যাবে আপনার জীবনে! বিশেষ করে যারা হট্টগোলপূর্ণ কোনো শহর থেকে সেখানে যাবেন, তাদের ভেতরটা একেবারে দুমরে মুচরে দেবে আহমেদাবাদ। তবে তা ইতিবাচক অর্থে। ভ্রমণপিয়াসীরা এমনই ১৩টি কারণ উল্লেখ করেছেন যেগুলোর কারণে আহমেদাবাদ শহর জীবনটা নষ্ট করে দেবে আপনার। 

১. সবরমতি নদীর ধার দিয়ে হাঁটতে পারেন। দিনের শুরুতে হোক বা শেষে, এ নদীর ধার দিয়ে কয়েক কদম হাঁটলেই গোটা দিনের ক্লান্তি চলে যাবে আপনার। 

২. এ শহরের সবচেয়ে বড় গুণটি হলো, এখানে সকল মেয়ে একেবারে নিরাপদ। তারা যেকোনো সময় নিশ্চিন্তে চলাফেরা করতে পারেন। কেউ তাদের জন্যে হুমকি হয়ে উঠবেন না। 

৩. বিদ্যুৎ যায় না এ শহরে। এটা কিন্তু অনেক বড় বিষয়। বিশেষ করে যারা লোডশিডিংয়ের নরকভোগ করেছেন, তাদের জন্যে এ শহরের বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বিস্ময়ক ছাড়া আর কিছুই নয়। 

৪. স্থানীয়রা পুরোপুরি বন্ধুত্বপূর্ণ। কাজেই ওখানে নিজেকে খুব বেশি একাকী মনে হবে না। 

৫. আহমেদাবাদবাসীরা কিন্তু বেশ উদারপন্থী। 

৬. তাদের উৎসব দারুণ রঙিন, বিচিত্র এবং সত্যিকার অর্থেই উপভোগ্য। 

৭. যানজট নেই বললেই চলে। ট্রাফিকব্যবস্থা সাজানো-গোছানো। 

৮. আরেক শান্তিপূর্ণ আস্তানা সবরমতি আশ্রম। সেখানে গেলে আপনার মনটা শান্তিতে ভরে যাবে। 

৯. বিচিত্র স্বাদের খাবারে পূর্ণ এক শহর। স্ট্রিট ফুড খুব জমে ওঠে। খেতেও অসাধারণ। 

১০. কানকারি লেক যেন রোমান্সের স্বর্গ। কাজেই সেখানে গিয়ে মনোমুগ্ধকার সময় কাটিয়ে আসতে পারেন। 

১১. শহরটা অ্যালকোহলমুক্ত। আর জীবনের অনেক সুন্দর দিক আপনাকে দেখাতে পারে শহরটি। 

১২.  ভারতে গেলে সেখানে সৈকতের শহর বলতেই গোয়াকে বোঝেন অনেকে। কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না যে আহমেদাবাদের দামান অ্যান্ড দিউ কোনো অংশে গোয়ার চেয়ে কম নয়। 

১৩. ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টসহ অন্যান্য কয়েকটি প্রতিষ্ঠোনে নানা বিষয়ে শিক্ষা অর্জনের দারুণ সুবিধা রয়েছে সেখানে। কাজেই যারা লেখাপড়া করতে যাবেন তাদের জন্যে মিলবে স্বর্গ। 
সূত্র: ট্রাভেল ট্রায়াঙ্গল 

মন্তব্য