kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৮ জুন ২০১৯। ৪ আষাঢ় ১৪২৬। ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

মোবাইল রিভিউ

স্টাইলিশ ফোন

মোস্তফা তাহমিদ   

১৮ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্টাইলিশ ফোন

ডিসপ্লে

বেজেল এবং নচহীন ৬ দশমিক ৫৩ ইঞ্চি এলপিটিএস ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে অপো এফ১১ প্রোতে। ডিসপ্লের রেজল্যুশন ১০৮০ বাই ২৩৪০, পিক্সেল ঘনত্ব ৩৯৭ পিপিআই। উজ্জ্বল ও দৃষ্টিনন্দন ডিসপ্লেটিতে প্রতিটি ছবি, ভিডিও বা গেইম হবে প্রাণবন্ত।

 

ক্যামেরা

সেলফির জন্যই বিশেষভাবে তৈরি অপো এফ১১ প্রোর পেছনে আছে দুটি এবং সামনে আছে সেলফির জন্য একটি ক্যামেরা। সেলফি ক্যামেরাটি পপআপ ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য এটি মোবাইলের ভেতর থেকে বের হয়। এটির জন্য রয়েছে বিশেষ সেন্সর। হাত থেকে পড়ে যাওয়ার সময় পপআপ ক্যামেরাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইলের ভেতরে চলে যায়। ফলে ক্যামেরার কোনো ক্ষতি হয় না।  

পেছনের মূল ক্যামেরার রেজল্যুশন ৪৮ মেগাপিক্সেল, অ্যাপারচার এফ/১.৮, আছে ফেইস ডিটেকশন অটোফোকাস। পোর্ট্রেট ছবিতে ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার করার জন্য আছে ৫ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। সেলফি ক্যামেরার রেজল্যুশন ১৬ মেগাপিক্সেল, অ্যাপারচার এফ/২.০। দুই পাশের ক্যামেরাতেই ১০৮০পি ভিডিও ধারণ করা যাবে, সঙ্গে আছে এআই বিউটিফিকেশন।

 

হার্ডওয়্যার

শক্তিশালী হেলিও পি৭০ অক্টাকোর প্রসেসর আছে অপো এফ১১ প্রো ফোনে, যার গতি ২.১ গিগাহার্জ। সঙ্গে আছে মালি জি৭২ এমপি৩ জিপিউ এবং ৪ অথবা ৬ গিগাবাইট র‌্যাম। হেলিও পি৭০ প্রসেসরটি ভারী অ্যাপ্লিকেশনও সহজেই চালাতে পারবে। খেলা যাবে এইচডি সব গেইম। ফোনটিতে ৬৪ অথবা ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজের পাশাপাশি ব্যবহার করা যাবে মেমোরি কার্ডও।

 

ব্যাটারি

অপো এফ১১ প্রো ফোনে দেওয়া হয়েছে ৪০০০ এমএএইচ ধারণক্ষমতার বিশাল ব্যাটারি। অনায়াসে দুই দিন ফোনটি ব্যবহার করা যাবে।

 

ডিজাইন

ক্যামেরার পাশাপাশি এই ফোনের ডিজাইনের দিকেও অপো বেশ সময় ব্যয় করেছে। ফলাফল, এফ১১ প্রোর মতো ফ্যাশনেবল ফোন বাজারে আছে খুবই কম। বেজেলহীন ডিসপ্লে, পপআপ ক্যামেরা, আর চোখ-ধাঁধানো কালারের গ্লাস ব্যাক সবার নজর কাড়তে বাধ্য। বিশেষ করে অরোরা গ্রিন মডেলটির পেছনের ডিজাইন অন্য সব ফোনের চেয়ে খুবই আলাদা। ফোনটির ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেওয়া হয়েছে পেছনে, তবে এই বাজেটে ইন-ডিসপ্লে সেন্সর এখনো আশা করা যায় না।

 

দাম

দেশের বাজারে ফোনটির দাম ৩৬ হাজার ৯৯০ টাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা