kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

এবাবের গুগল আই/ও

৯ মে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় শেষ হলো এ বছরের ‘গুগল আই/ও’। সফটওয়্যারবিষয়ক এই বার্ষিক সম্মেলনে গুগল তাদের নতুন সব সফটওয়্যার হালনাগাদ ও ফিচার তুলে ধরে। সেসবের মধ্যে উল্লেখযোগ্য অংশই স্মার্টফোনসংক্রান্ত। জানাচ্ছেন এস এম তাহমিদ

১৮ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এবাবের গুগল আই/ও

অ্যানড্রয়েড কিউ

কয়েক মাস ধরেই নতুন অ্যানড্রয়েড সংস্করণের পরীক্ষামূলক সংস্করণ নিয়ে কাজ করছে গুগল। এবারের সংস্করণে নতুন যেসব ফিচার সংযুক্ত করা হবে তা নিশ্চিত করেছে এবারের সম্মেলনে। সবচেয়ে বড় পরিবর্তনটি হচ্ছে পুরো সিস্টেমে ডার্কমোড ব্যবহার। এর মাধ্যমে পুরো অ্যানড্রয়েড সিস্টেমের প্রতিটি ইন্টারফেইসেই ব্যবহার করা হবে কালো বা কালচে রং। দীর্ঘদিন ধরেই ব্যবহারকারীরা এ ফিচারটির জন্য আবেদন করে আসছিলেন। অ্যানড্রয়েড কিটক্যাট পর্যন্ত অবশ্য অ্যানড্রয়েডের পুরো ইন্টারফেইস ডার্ক ছিল, যা ললিপপ থেকে বদলে যায়। ডার্কমোডের মূল সুবিধা, অ্যামোলেড ডিসপ্লের ডিভাইসগুলোতে ব্যাটারি সাশ্রয় করে থাকে। চোখের ওপর চাপ কমাতেও ডার্কমোড উপকারী। মূল ইন্টারফেইসের পাশাপাশি ডার্কমোড চালু অবস্থায় অন্য অ্যাপগুলোও ডার্কমোডে রূপান্তরিত হবে।

এ ছাড়া অ্যানড্রয়েড কিউ থেকে ব্যবহারকারীরা ওটিএ ছাড়াই সরাসরি প্লেস্টোর থেকে অ্যানড্রয়েড আপডেট পাবেন। এই সিস্টেমের নাম দেওয়া হয়েছে ‘প্রজেক্ট মেইনলাইন’। তবে অপারেটিং সিস্টেমের কতটুকু অংশ প্লেস্টোর থেকে আপডেট হবে তা জানা যায়নি। এতে ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা আপডেট আর নতুন ফিচারের জন্য নির্মাতাদের মর্জির ওপর নির্ভর করতে হবে না। এ ছাড়া গুগল সার্চে ব্যবহারকারীরা পাবেন অগমেন্টেড রিয়ালিটি সুবিধা, ক্যামেরায় ছবি তুলে আরো নির্ভুলভাবে সার্চ করার অপশন। এই দুটি অপশন অন্যান্য অ্যানড্রয়েড সংস্করণেও যুক্ত হতে পারে।

স্মার্টহোমে গুগলের ছায়া

স্মার্টহোমের জন্য ক্যামেরা, থার্মোস্ট্যাট এবং অন্যান্য নিরাপত্তাসামগ্রী নির্মাতা ‘নেস্ট’কে গুগল বেশ আগেই কিনে ফেললেও এত দিন পর্যন্ত সেটি কিছুটা স্বাধীনভাবেই কাজ করেছে। তবে নেস্টের বিদায়ঘণ্টা বেজে গেছে এবারের গুগল আইও সামিটে। এখন থেকে ‘গুগল নেস্ট’ ব্র্যান্ডে সরাসরি গুগলের স্মার্টহোম প্রযুক্তির পণ্য বাজারে আসবে। আর গুগল নেস্টের মূল কেন্দ্রবিন্দু হবে এবার ‘নেস্ট হাব ম্যাক্স’। বড় ডিসপ্লেযুক্ত স্মার্ট স্পিকারটিতে ভিডিও কল করা যাবে, ব্যবহার করা যাবে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টও। যাঁরা এখন নেস্ট পণ্য ব্যবহার করছেন, তাঁরা সমস্যায় পড়বেন, কেননা গুগল নেস্ট পণ্যগুলো শুধু গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের সঙ্গে কাজ করে এমন সব ডিভাইসের সঙ্গেই কাজ করবে।

গুগল পিক্সেল ৩এ ও ৩এ এক্সএল

মাঝারি বাজেটে পিক্সেল ফোন নিয়ে এবার গুগল হাজির। দুটি মডেলের মধ্যে পার্থক্য মূলত ডিসপ্লে সাইজ ও ডিজাইনে। পিক্সেল ৩এ ফোনটির দাম ধরা হয়েছে ৩৯৯ ডলার এবং ৩এ এক্সএলের দাম ৪৪৯ ডলার। ফোনগুলোতে থাকছে ৫.৬ ও ৬ ইঞ্চি ওলেড ডিসপ্লে, যার রেজল্যুশন ফুল এইচডি প্লাস। প্রসেসর দেওয়া হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৭০, র‌্যাম থাকছে ৪ গিগাবাইট এবং স্টোরেজ ৬৪ গিগাবাইট। সামনে ও পেছনে পিক্সেল  ৩-তে ব্যবহার করা ক্যামেরাই থাকছে, মূল ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেলের এবং সেলফি ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেলের। পিক্সেল ৩এতে থাকছে ৩০০০ এমএএইচ এবং ৩এ এক্সএলে থাকছে ৩৭০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

পিক্সেল ৩ এখনো সেরা স্মার্টফোন ক্যামেরার মধ্যে নিজের স্থান ধরে রেখেছে, বিশেষ করে পোর্ট্রেট মোড এবং নাইট সাইটে বেশির ভাগ ফোনকেই হারিয়ে দিয়েছে সেটি।

একই পারফরম্যান্স পিক্সেল ৩এ থেকেও পাওয়া যাবে। সঙ্গে থাকছে অন্তত তিন বছর সরাসরি গুগল থেকে অ্যানড্রয়েড হালনাগাদ পাওয়ার সুবিধা।

ম্যাপসে অগমেন্টেড রিয়ালিটি

গুগল ম্যাপসে নেভিগেশন করার জন্য যুক্ত হচ্ছে অগমেন্টেড রিয়ালিটি। ক্যামেরা চালু করলেই দেখা যাবে রাস্তার নাম, সামনে থাকা বাড়ির ঠিকানা। নেভিগেশন করার জন্য কোন রাস্তায় যেতে হবে তা সরাসরি ক্যামেরার সামনে থাকা রাস্তাগুলোর ওপর তীর চিহ্ন দেখিয়েই নির্দেশনা দেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা