kalerkantho

সোমবার । ২০ মে ২০১৯। ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৪ রমজান ১৪৪০

গেইম রিভিউ

শয়তানের বিরুদ্ধে লড়াই

মোহাম্মদ তাহমিদ   

৩০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শয়তানের বিরুদ্ধে লড়াই

মন্দের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নিয়ে তৈরি ‘হ্যাক অ্যান্ড স্ল্যাশ’ ঘরানার গেইম সিরিজ ‘ডেভিল মে ক্রাই’-এর নতুন গেইম ‘ডিএমসি ৫’। অনেক গেইমার সিরিজের আগের গেইমটি নিয়ে হতাশ হলেও ‘ডিএমসি ৫’ সবার মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে। থার্ড পারসন ঘরানার গেইমটির মূল লক্ষ্য ডিমন বা শয়তান দমন। তিনটি নায়ক চরিত্র নিয়ে গেইমটি খেলতে হবে—নিরো, ভি ও দান্তে।

প্রতিটি নায়ক চরিত্রের রয়েছে নিজস্ব অস্ত্র ও খেলার ধরন। নিরো তলোয়ার ও রিভলবার ব্যবহার করে লড়াই করে, অনেকটা দান্তের মতো। তবে দান্তে বেশ বুড়ো হয়ে যাওয়ায় এই নতুন নায়ক চরিত্রটি গেইমে যুক্ত করা হয়েছে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দান্তের অভাব নিরো পুষিয়ে দেওয়ায় ডিএমসিভক্তরা বেশ খুশি। দান্তে একইভাবে লড়াই করলেও তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে হ্যাট ব্যবহার করে সরাসরি জাদুর মাধ্যমে লড়াই করার উপায়। এ ছাড়া দান্তে তার বাইক ব্যবহার করেও লড়াই করতে পারবে।

ভিয়ের লড়াইকৌশল বাকি সবার চেয়ে আলাদা। সে সরাসরি হামলা না করে দূর থেকে জাদুবলে অন্যান্য শয়তান বা ডিমন ডেকে এনে আক্রমণ চালায়। সেদিক থেকে ভি নিয়ে খেলা বাকি দুই চরিত্রের চেয়ে কিছুটা কম উত্তেজনার। নিরো বা দান্তেকে নিয়ে খেলতে খেলতে হাঁপিয়ে উঠলে ভি নিয়ে খেলে অন্য রকম মজা পাওয়া যাবে।

গেইম প্লে সিরিজের আগের গেইমগুলোর মতোই। প্রতিটি মিশনের মূলমন্ত্র এলাকার সব শয়তানকে মেরে পরবর্তী এলাকায় গমন। গেইমটির কাহিনি নিরো ও দান্তের শহরে ডিমনদের আবির্ভাবকে কেন্দ্র করে। তাদের দমন করতেই গেইমের তিন নায়ক ঝাঁপিয়ে পড়ে।

কাহিনি নয়, হ্যাক অ্যান্ড স্ল্যাশ গেইম প্লেই ‘ডিএমসি ৫’-এর মূল আকর্ষণ। দৈর্ঘ্যে গেইমটি বেশি বড় নয়, ২০ ঘণ্টার মতো মূল ক্যাম্পেইন। তবে সামনে আরো ডাউনলোডযোগ্য অনেক কনটেন্ট বা ‘ডিএলসি’ আসবে বলে জানা গেছে। গেইমের মধ্যে তলোয়ারের কম্বো দিয়ে করা মিলি অ্যাটাক, রিভলবার ও রাইফেলের গুলির হামলা, জাদুবিদ্যা ও রোবটিক হাতের ব্যবহারে মিলি অ্যাটাকের উপায় দেওয়া হয়েছে। গেইমটি অত্যন্ত দ্রুতগতির অ্যাকশন ঘরানার, তাই যাঁরা ধীরগতির গেইম কাহিনির জন্য খেলেন, তাঁদের ভালো না-ও লাগতে পারে।

কি-বোর্ড-মাউসে গেইমটি খেলা গেলেও কন্ট্রোলার ছাড়া আসল মজা পাওয়া যাবে না। গেইমের গ্রাফিকস অসাধারণ, বিশেষ করে প্রতিটি চরিত্রের চেহারা খুবই চমৎকারভাবে তৈরি করা হয়েছে। গেইমটির অ্যাকশন এনিমেশনও দারুণ। দেখে মোটেও দৃষ্টিকটু লাগবে না। তবে কাহিনির গভীরতা আরো বাড়ানো যেত।

গেইমটি পিসি ছাড়াও খেলা যাবে প্লেস্টেশন ৪ এবং এক্সবক্স ওয়ানে।

 

খেলতে যা যা লাগবে

পিসিতে খেলার জন্য লাগবে ৬৪ বিট উইন্ডোজ ৭

ইন্টেল কোর আই৭ বা সমমানের এএমডি প্রসেসর

৮ গিগাবাইট র‌্যাম

এনভিডিয়া জিটিএক্স ৭৬০ গ্রাফিকস বা এএমডি আর৯ ২৮০এক্স

হার্ডডিস্কে অন্তত ৩৫ গিগাবাইট জায়গা।

মন্তব্য