kalerkantho

রবিবার । ৯ মাঘ ১৪২৮। ২৩ জানুয়ারি ২০২২। ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

পাকিস্তানিরা কেন প্রতিপক্ষের ড্রেসিংরুমে যাতায়াত শুরু করেছে?

অনলাইন ডেস্ক   

১২ নভেম্বর, ২০২১ ১২:৪৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাকিস্তানিরা কেন প্রতিপক্ষের ড্রেসিংরুমে যাতায়াত শুরু করেছে?

আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে নভেম্বর মাসের দুই তারিখ পাকিস্তানের কাছে ৪৫ রানে হেরে যাওয়ার পর নামিবিয়ার ক্রিকেটাররা ড্রেসিংরুমে বসেছিলেন। তখন দরজায় টোকা দেন পাকিস্তান দলের টিম ম্যানেজার মানসুর রানা। তবে একা নন, পাকিস্তানের ক্রিকেটাররাও ছিলেন সাথে।

নামিবিয়ার ক্রিকেটারদের জন্য এটা ছিল একটা চমৎকার উপহার।

বিজ্ঞাপন

যে দল মাত্রই তাদের হারালো তারা প্রতিপক্ষ হিসেবে না বন্ধু হিসেবে তাদের সাথে দেখা করতে চলে এল। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড টুইটার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করে যেখানে দেখা গেছে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা টিম ম্যানেজার মানসুর রানার নেতৃত্বে নামিবিয়ার ক্রিকেটারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করছেন, জড়িয়ে ধরছেন কথা বলছেন।

মূলত তাদের উৎসাহ দিতেই এই উদ্যোগ নেয় পাকিস্তান ক্রিকেট দল, তাদের বার্তা ছিল, 'তোমরা ভাল করছো। ' সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকা ও বর্তমান নামিবিয়ান ক্রিকেটার ডেভিড উইসা পাকিস্তানের ক্রিকেটার ও সমর্থকদের কাছে নতুন কেউ নন। তিনি এর আগে পাকিস্তান সুপার লিগে লাহোর কালান্দারসের হয়ে খেলেছেন, যে কারণে ম্যাচ শেষেও দেখা গেছে লাহোর ফ্র্যাঞ্চাইজের ক্রিকেটারদের সাথে কৌতুক করছেন তিনি।

নামিবিয়ার ড্রেসিংরুমে যাওয়া এবং তাদের ক্রিকেটারদের উৎসাহ দেয়ার চিন্তা এসেছে পাকিস্তান দলের মিডিয়া ম্যানেজার ইব্রাহিম বাদিজের মাথা থেকে। এই মিডিয়া ম্যানেজার পাকিস্তান দলের বেশ কয়েকটি বিদেশ সফরে বেশ পেশাদার দায়িত্ব পালন করেছেন। পাকিস্তানের টিম ম্যানেজার মানসুর রানা বিবিসি উর্দুকে বলেছেন, যদি আপনি কারো থেকে ভালো কিছু চান, তবে ভালো কিছু করেন। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মূল লক্ষ্য, বিশ্বের কাছে দেশ হিসেবে পাকিস্তানের ইতিবাচক ভাবমূর্তি তুলে ধরা।

নামিবিয়ার ড্রেসিংরুমে সাক্ষাতের পরে স্কটল্যান্ড দলকে নিজেদের ড্রেসিংরুমে আমন্ত্রণ জানায় পাকিস্তান ক্রিকেট দল। হারিস রৌফের জন্মদিনে কেক কাটা এবং আনন্দ ভাগাভাগি করতে স্কটল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও শরীক হন। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অন্যসব দলের মতোই পাকিস্তানের ক্রিকেটাররাও দীর্ঘদিন হোটেল রুমেই আবদ্ধ ছিলেন বিদেশ সফরে গিয়ে। এমনকি বিশ্বকাপের আগেও।

দলটির ম্যানেজমেন্ট এবং ক্রিকেটাররা হোটেল স্টাফদের কথাও মাথায় রেখেছেন, যেহেতু এই হোটেল স্টাফরাই লম্বা সময় ধরে ক্রিকেটারদের ভালোমন্দ দেখভাল করে আসছেন। পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা তাদের জার্সি ও স্মারক উপহার দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলতে দুবাই যাওয়ার আগেও টিম হোটেলের কর্মীদের স্মারক উপহার দিয়েছে পাকিস্তানের ক্রিকেট দল।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের নামিবিয়ার ড্রেসিংরুমে সৌজন্য সাক্ষাতের ভিডিও আলোচনায় আসার পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে আসা অন্য দলগুলোও এটাকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়ে এই সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। ভারতের ক্রিকেট দল স্কটল্যান্ডের ড্রেসিংরুমে গিয়ে স্কটল্যান্ডের ক্রিকেটারদের সাথে সাক্ষাত করেন। তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগে পাকিস্তানে খেলতে আসা শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের সাথেও তারা ড্রেসিংরুমে গিয়ে দেখা করেছে।

- বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন অবলম্বনে



সাতদিনের সেরা