kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

সৌম্য-মুশফিককে হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ অক্টোবর, ২০২১ ১৯:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৌম্য-মুশফিককে হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ

মাত্র ১৪৩ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে ৯৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে বাংলাদেশ। মাঝারি লক্ষ্য তাড়ায় সাকিবকে তুলে আনা হয়েছিল ওপেনিংয়ে। পাওয়ার প্লেতে দুই ফিল্ডার বৃত্তের বাইরে, সেটা কাজে লাগিয়ে দ্রুত কিছু রান তুললেই তো মাঝারি লক্ষ্যটা ছোট হয়ে আসে অনায়াসে। কিন্তু বাংলাদেশ পূরণ করতে পারেনি। ছয় ওভার শেষে তুলতে পেরেছে মাত্র ২৯ রান, তাও আবার দুই ওপেনারকে হারিয়ে।

অথচ সবাই তাকিয়ে ছিল হয়তো ব্যর্থতার চক্র ভেঙে দারুন শুরু এনে দেবেন তারা। কিন্ত আশায় গুঁড়েবালি। আবারো সেই ব্যর্থতার গল্প সামনে এলো। স্কোর বোর্ড ২১ রান হতেই ফিরে যান সাকিব। প্রথম ওভারে বলে এসে তৃতীয় বলে সাকিবকে ফেরায় আন্দে রাসেল। এর আগে ২ বলে ৯ রান যোগ করেন এই নতুন ওপেনার। একটু থেমে চলে যান নাঈম শেখও। ১৯ বলে ১৭ রান করে হোল্ডারের বলে বোল্ড হন নাঈম।

২৯ রানে সাকিব-নাঈম আউট হওয়ার পর দলের হাল ধরেন লিটন-সৌম। তৃতীয় উইকেটে তাড়া ৩১ রানের জুটি গড়েন। ক্রিজে ব্যাট করছে লিটন-মাহমুদউল্লাহ। বাংলাদেশের স্কোর ১৫ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৯৯।

এর আগে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে গ্রুপ 'ওয়ান'-এ নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শুক্রবার শারজায় টস জিতে ক্যারিবীয়দের শুরুতে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় বাংলাদেশ।

ওয়েস্ট ইন্ডির ব্যাটাররা ৭ উইকেটে তুলে নেন ১৪২ রান। শেষ সময়ে নিকোলাস পুরানের ঝড়ো ইনিংস বড় হয়। তবে এতে বাংলাদেশি ফিল্ডারদেরও কম অবদান নেই।

ইনিংসের শুরু থেকেই উইন্ডিজকে চাপে রাখতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ দল। প্রথম ১৫ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৮৪ রান করার সুযোগ পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু এরপর আর লাগাম ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। 

শেষ দিকে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান নিকোলাস পুরান ও রোস্টন চেজ। ২ রানে লাইফ পাওয়া নিকোলাস পুরান ফেরেন ২৩ বলে এক চার ও ৪টি  দৃষ্টিনন্দন ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৪০ রান করে।



সাতদিনের সেরা