kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

১৯৯২-র স্মৃতি ফেরাল ইংল্যান্ড

২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বকাপ ফিরছে ১৯৯২ সালের ফরম্যাটে। স্বাগতিক ইংল্যান্ডও ফিরিয়ে আনল ২৭ বছর আগের স্মৃতি। ’৯২-এ ইয়ান বোথাম, গ্রাহাম গুচদের পরা জার্সির আদলে তৈরি পোশাকে এবার খেলবেন এউইন মরগান, জো রুট, জোফ্রা আর্চাররা। গতকাল হয়ে গেল নতুন জার্সির আনুষ্ঠানিক ফটোসেশন। ’৯২-এর মতোই জার্সির রং হাল্কা নীল। মধ্যে বড় করে লেখা ইংল্যান্ড। তবে গলার স্ট্রিপে এসেছে কিছুটা পরিবর্তন। গুচদের জার্সিতে ছিল লাল, নীল, সবুজের ছোঁয়া। এবার নীল রঙেরই কারুকাজ। ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপে সেরা সাফল্য তিনবার ফাইনাল খেলা। সব শেষ ফাইনাল ১৯৯২ বিশ্বকাপে। এ জন্যই হয়তো ২৭ বছর আগের স্মৃতি জড়ানো জার্সিতে খেলবেন মরগানরা।

১৯৯২-এর আগে ইংল্যান্ড দুইবার ফাইনাল খেলেছে ১৯৭৯ ও ১৯৮৭-তে। গত বিশ্বকাপে আশা জাগিয়েও বিদায় গ্রুপ পর্ব থেকে। এর মাঝে ক্রিকেটে সেরা সাফল্য ২০১০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়। গতকাল নতুন জার্সির ফটোসেশন শেষে টেস্ট অধিনায়ক ও বিশ্বকাপ দলের ব্যাটিং ভরসা জো রুটের কণ্ঠে ঝরল ভালো কিছুর প্রত্যয়, ‘অনেক দিন পর কোনো বিশ্বকাপে এত ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে খেলতে যাচ্ছি আমরা। সবাই মুখিয়ে আছে টুর্নামেন্টটা খেলতে। এখন শুধু সঠিক সময়ে পারফরম করতে হবে।’

পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দুর্দান্ত দাপটে জিতেছে ইংল্যান্ড। সব ম্যাচেই করেছে ৩০০-র বেশি স্কোর। রান পেয়েছেন জস বাটলার, জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, বেন স্টোকস, এউইন মরগানসহ সবাই। বিশ্বকাপ শুরু করতে তাই তর সইছে না অধিনায়ক এউইন মরগানের, ‘এই মুহূর্তে সবচেয়ে ভালো জায়গায় আছি আমরা। ২০১৫ সালের পর দলটা বদলে গেছে একেবারে। সবাই প্রত্যয়ী ভালো কিছু করতে।’ ক্রিকইনফো

মন্তব্য