kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

বিশ্বকাপে সাকিব শীর্ষে থেকেই

২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বকাপে সাকিব শীর্ষে থেকেই

ক্রীড়া প্রতিবেদক : সাকিব আল হাসান, ক্রিকেটের যেকোনো র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান পাওয়া বাংলাদেশের প্রথম এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র ক্রিকেটার। বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটারের পক্ষেও যে বিশ্বমঞ্চে নিয়মিত ভালো পারফরম করে যাওয়া সম্ভব, সেটা প্রথম দেখিয়েছিলেন সাকিবই। আইসিসির সব শেষ প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে অলরাউন্ডারদের ভেতর সবার ওপরে সাকিবের নাম। তাঁর পরে যাঁর নাম, তাঁর অবশ্য অলরাউন্ডার নয় লেগস্পিনার হিসেবেই বৈশ্বিক পরিচিতি। অলরাউন্ডার র‌্যাংকিংয়ে সাকিবের পরের নামটা রশিদ খানের। তিনে আরেক আফগান মোহাম্মদ নবী। ওয়ানডে ব্যাটসম্যান ও বোলারের নামে অবশ্য খুব একটা পরিবর্তন নেই। শীর্ষ ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও শীর্ষ বোলার জসপ্রিত বুমরাহ।

আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে অনিয়মিত মৌসুম কাটিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে আয়ারল্যান্ড যান সাকিব। প্রস্তুতি ম্যাচেই তাঁর ব্যাটে দেখা গেছে রানের আভাস। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ওয়ানডেতে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ৬১*, ২৯ ও ৫০* রানের ইনিংস। সব মিলিয়ে ১৪০, শেষ ইনিংসটা চোটের কারণে রিটায়ার্ড হার্ট না হলে হয়তো রানসংখ্যা আরেকটু বাড়ত। তিন ম্যাচে উইকেট পেয়েছেন দুটি। এই পারফরম্যান্সই সাকিবকে আরো একবার নিয়ে এসেছে ওয়ানডের অলরাউন্ডার র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে, যে জায়গাটা তাঁর খুবই চেনা। ৩৫৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে সাকিব, ২০ পয়েন্টে পিছিয়ে দ্বিতীয় রশিদ খান আর ৩১৯ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় মোহাম্মদ নবী। চারে পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিম, পাঁচে নিউজিল্যান্ডের মিচেল স্যান্টনার।

একটা সময় ক্রিকেটবিশ্ব ইমরান খান, রিচার্ড হ্যাডলি, কপিল দেব ও ইয়ান বোথামের মতো চার অলরাউন্ডার দেখেছে। এখন যদিও চলছে ব্যাটসম্যানদের দাপট, তবু প্রথম দুই বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ক্লাইভ লয়েড মনে করেন এবারের বিশ্বকাপ হবে অলরাউন্ডারদের, ‘আফগানিস্তান থেকে ইংল্যান্ড, ভারত থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ; সব দলেই ভালো মানের অলরাউন্ডার আছে। আমার বিশ্বাস এবারের বিশ্বকাপটা হবে অলরাউন্ডারদের বিশ্বকাপ।’ সেই সম্ভাব্য অলরাউন্ডারদের বিশ্বকাপে সেরা অলরাউন্ডার বাংলাদেশের! আইসিসি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা