kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

বললেন স্টিভ ওয়াহ

অস্ট্রেলিয়াকে ভয় পাবে সবাই

২১ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রেকর্ড পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। সেই তারা এখন ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের পাঁচ নম্বরে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হলেও বিশ্বকাপে ফেভারিট হয়ে আসছে না অ্যারন ফিঞ্চের দল। তবে ভারত ও পাকিস্তানকে সিরিজ হারানোয় আত্মবিশ্বাস বেড়েছে অস্ট্রেলিয়ার। সাবেক অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ মনে করছেন এ জন্য ফিঞ্চদের নিয়ে বাড়তি সতর্ক থাকবে সবাই। আইসিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই কিংবদন্তি জানালেন, ‘সব দলই অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে সতর্ক থাকবে। সবার জানা অস্ট্রেলিয়ার ক্ষমতা কতটা। গত ১২ মাসে টালমাটাল অবস্থা ছিল ঠিকই, তবে সব সামলে উঠেছি আমরা। আমাদের সেরা খেলোয়াড় স্মিথ, ওয়ার্নার এখন বিশ্বকাপ দলে।’

এই বিশ্বকাপে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ভাবা হচ্ছে হট ফেভারিট। শিরোপা দৌড়ে এর পরই আছে ভারত। তবে অস্ট্রেলিয়াকেও হেলাফেলার ভাবছেন না ওয়াহ, ‘ওরা টানা আট ম্যাচ জিতে খারাপ সময় পেছনে ফেলে এসেছে। ফিঞ্চরা হয়তো এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট নয়, তবে কোনো দল সবচেয়ে বেশি কাউকে ভয় করলে সেটা অস্ট্রেলিয়াই।’

অস্ট্রেলিয়া প্রথম বিশ্বকাপ জিতেছিল ১৯৮৭ সালে। এরপর সর্বশেষ পাঁচ আসরে চারবারই চ্যাম্পিয়ন তারা। এবারও বিশ্বকাপের আগে অ্যারন ফিঞ্চের দল ফিরে পেয়েছে নিজেদের। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিজয়ী পাকিস্তানকে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হারিয়েছে ৫-০ ব্যবধানে। ভারতকে সিরিজ হারিয়েছে তাদের মাটিতে। নিজেদের আক্রমণাত্মক ক্রিকেটটাই এবারের বিশ্বকাপে খেলতে চান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার, ‘কখনো কখনো অনেকে বলে আমরা ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড বা ভারতের মতো খেলতে শুরু করেছি। এর দরকার নেই। নিজেদের খেলাটা ধরে রাখতে হবে আমাদের। কারণ আমরা এভাবে খেলে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, যা গর্ব করার মতো। খেলোয়াড়রা জানে এটা। যদি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটটা খেলতে পারি তাহলে... উজ্জ্বল হতে পারে গর্বের ইতিহাস।’

স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার এক বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরেছেন জাতীয় দলে। বিশ্বকাপ শুরুর আগে দুজনকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপহাস শুরু করেছে ইংলিশ কট্টর সমর্থকের দল বার্মি আর্মি। গ্যালারির এই আগুন সামলে দুজন খেলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানালেন ল্যাঙ্গার, ‘এমন কিছু আগে কখনো দেখিনি, তাই ওরা প্রস্তুতি নিয়ে নামছে। নিজেদের ভুলের বড় মাসুল দিয়েছে দুজন, এখন প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে গ্যালারির আগুন সামলে সেরা ব্যাটিংয়ের। ওয়ার্নার অফুরন্ত প্রাণশক্তি নিয়ে আসে দলে। ভালো করতে ক্ষুধার্ত হয়ে আছে রীতিমতো। আর স্মিথ তো ব্যাটিংয়ের শ্যাডো করে হাঁটতে, চলতে এমনকি গোসলের সময়ও! গত সপ্তাহে ব্রিসবেনে অসাধারণ ব্যাট করেছে স্মিথ।’ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা