kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

মুখোমুখি প্রতিদিন

মাঠ ভালো হলে কিংসের খেলা আরো ভালো হয়

২০ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাঠ ভালো হলে কিংসের খেলা আরো ভালো হয়

প্রথম লেগের খেলা শেষে ৪ পয়েন্টে এগিয়ে বসুন্ধরা কিংস। লিগের ১২ ম্যাচে অপরাজিত থাকা দলটি শুধু একটি ম্যাচ ড্র করেছে। দুর্দান্ত এই প্রথম লেগের পর কিংসের অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার নাসিরউদ্দিন চৌধুরী মুখোমুখি হয়েছেন কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : বসুন্ধরা কিংসের প্রথম পর্বটাকে কিভাবে ব্যাখ্যা করবেন?

নাসিরউদ্দিন চৌধুরী : আমরা ১২ ম্যাচে গোল খেয়েছি ৬টি আর করেছি ২৬টি। এই পরিসংখ্যানই বলে দেয়, আমাদের দলের প্রত্যেকটি বিভাগ কত ভালো খেলেছে। গোলরক্ষক থেকে শুরু করে ফরোয়ার্ড লাইন পর্যন্ত সবার পারফরম্যান্সে ধারাবাহিকতা ছিল। একটি ম্যাচে আমরা পয়েন্ট হারিয়েছি, খেলাটা নোয়াখালী না হয়ে অন্য কোথাও হলে সেই ম্যাচও আমরা জিততাম। আমার বিশ্লেষণে মাঠ ভালো হলে বসুন্ধরা কিংসের খেলা আরো ভালো হয়।

প্রশ্ন : একমাত্র এই দলেই তো একজন বিশ্বকাপার খেলে, সেদিক থেকে কিংস অন্যদের চেয়ে শক্তিশালীও...

নাসির : ড্যানিয়েল কলিনড্রেস নিঃসন্দেহে ভালো খেলোয়াড়। কিন্তু আমাদের দল তার ওপর নির্ভরশীল নয়। নির্দিষ্ট কোনো খেলোয়াড়ের ওপর নির্ভর করে থাকে না। তার বড় প্রমাণ, মোহামেডানের ম্যাচে কোস্টারিকানকে ছাড়াই আমরা ৪ গোল করেছি। আমাদের দলে ম্যাচ উইনারের সংখ্যা অনেক বেশি। কেউ একজন কোনো ম্যাচে না খেললে তার জায়গা পূরণ করার মতো অনেক খেলোয়াড় আছে। তা ছাড়া আমরা দলগত ফুটবল ও ঐক্যে বিশ্বাসী।

প্রশ্ন : ৪ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় লেগ শুরু করবেন আপনারা। শিরোপার পথে কি অনেকখানি এগিয়ে গেছে বসুন্ধরা কিংস?

নাসির : না। লিগ শেষ হওয়ার আগে নিজেদের চ্যাম্পিয়ন ভেবে ফেললে সব শেষ হয়ে যাবে। গতবার যেমন ১৭ রাউন্ড পর্যন্ত চট্টগ্রাম আবাহনী এগিয়ে ছিল, ঢাকা আবাহনী ছিল তিন নম্বরে। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ঢাকা আবাহনী। আর চট্টগ্রাম আবাহনী পরের ম্যাচগুলোতে পয়েন্ট হারিয়েছে। তাই দ্বিতীয় লেগেও একই টেম্পোতে খেলে যেতে হবে শেষ পর্যন্ত। কারণ ১২ ম্যাচে যেকোনো কিছু ঘটতে পারে, তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। দ্বিতীয় লেগে খেলা হবে বর্ষায়। মাঠের অবস্থা খারাপ হলে যেকোনো বড় দল পয়েন্ট হারাতে পারে।

মন্তব্য