kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

শেখ রাসেলের হয়ে লিগ জিততে চাই

১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



শেখ রাসেলের হয়ে লিগ জিততে চাই

ফুটবলে তারকা হওয়াটা এখন বড় সহজ। বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপে এক গোল করেই কেমন খ্যাতি পেয়ে গেলেন অখ্যাত বিপলু আহমেদ! তিনি এবার শেখ রাসেলের হয়ে ঘরোয়া ফুটবলও মাত করার অপেক্ষায়। কাল রাসেলের আনুষ্ঠানিক দলবদলের দিনে কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়েও বললেন তেমনটাই

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতে কেমন লাগছে?

বিপলু আহমেদ : অনেক বেশি ভালো লাগছে। ভাবিনি এমন একটা স্বীকৃতি পাব। তবে আমার লক্ষ্যই ছিল এই টুর্নামেন্টটায় অনেক ভালো করার। প্রতিটি ম্যাচে সেই একাগ্রতা নিয়েই খেলেছি। সিলেটে ঘরের মাঠে গোল করে দলকে জেতাতে পেরেছি। ফাইনালে খেলতে পারলে আরো বেশি ভালো লাগত।

প্রশ্ন : ঘরোয়া ফুটবলে এবার শেখ রাসেলে যোগ দিলেন কী চিন্তা করে?

বিপলু : শেখ রাসেল এখন দেশের শীর্ষ একটি ক্লাব। প্রতিবারই শিরোপা জেতার মানসিকতা নিয়ে ওরা দল গড়ে। এবারও যে খেলোয়াড়দের ওরা নিয়েছে তাতে ভালো কিছুই সম্ভব। আমিও সেই লক্ষ্য নিয়েই এই দলে যোগ দিয়েছি। ক্যারিয়ারে এখনো লিগ শিরোপা পাইনি আমি। আশা করি রাসেলেই সেই স্বপ্নটা পূরণ হবে।

প্রশ্ন : ক্যারিয়ারের শুরুতে সাইফুল বারীকে কোচ হিসেবে পেয়েছিলেন, সেই তিনিই তো এবার শেখ রাসেলে...

বিপলু : হ্যাঁ, এটাও একটা কারণ। তাঁর কাছে অনেক কিছু শিখেছি। তিনিও যেহেতু আমার সম্পর্কে জানেন, তাঁর অধীনে এখন খেলাটাই আমার জন্য ভালো হবে মনে হয়েছে।

প্রশ্ন : জাতীয় দলের ফর্মটা ধরে রাখতে কতটা আত্মবিশ্বাসী?

বিপলু : আমি চাই-ই জাতীয় দলে যেভাবে ছিলাম সেই একই মানসিকতা নিয়ে ক্লাবে থাকি। জাতীয় দলে শৃঙ্খলার বিষয়টি নিয়ে ছিল কড়াকড়ি, আমি সেভাবেই অভ্যস্ত হয়ে গেছি। ক্লাবেও তা ধরে রাখতে চাই। ঠিকঠাক খাওয়াদাওয়া, সময়মতো ঘুমানো—এ সব কিছুর সঙ্গে কঠোর পরিশ্রমটা চালিয়ে যেতে পারলে অবশ্যই আমি আরো অনেক দূর যেতে পারব।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপে উদীয়মান ফুটবলারের স্বীকৃতি জেতাটাও তো প্রেরণা?

বিপলু : তা-তো অবশ্যই। এই স্বীকৃতি আমার প্রত্যাশা আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। সামনে অবশ্যই তা ভালো করার প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।

প্রশ্ন : নিজের কোন কোন জায়গায় উন্নতির প্রয়োজন আছে মনে করেন?

বিপলু : এ নিয়ে কোচের সঙ্গেও আমার কথা হয়েছে। তিনি শরীরের প্রতি আরো যত্ন নিতে বলেছেন। নিয়ম করে জিম করতে বলেছেন। এ নিয়ে ক্লাবেও আমার কথা হয়েছে। তারা জিমের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রেখেছে। আমি তাই চেষ্টা করব শারীরিকভাবে আরো ফিট হতে। আর খেলার দিক দিয়ে বললে বলল, আমার ফাইনাল পাসগুলো আরো ভালো করতে চাই। মাঠে পরিশ্রম করতে চাই আরো বেশি।



মন্তব্য