kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

ওতামেন্দির গোলে ডার্বি ম্যানসিটির

১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ওতামেন্দির গোলে ডার্বি ম্যানসিটির

ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরে গতকালের রাতটা কারা শান্তিতে ঘুমিয়েছেন আর কারা হতাশায় বারবার এপাশ-ওপাশ করেছেন, সেটা ঠিক করে দিলেন এক আর্জেন্টাইন। নিকোলাস ওতামেন্দি। গোল করতে না দেওয়াটাই প্রধান কাজ এই সেন্টার ব্যাকের; অন্যদিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রোমেলু লুকাকুর কাজ গোল করা। দুজনের কাজে অদলবদল হয়ে গেল! কেভিন ডি ব্রুইনের ফ্রিকিকটা ক্লিয়ার করতে গিয়ে লুকাকু মারলেন নিজেদের খেলোয়াড়েরই গায়ে, সেটাই স্লাইডিং কিকে ম্যানইউর জালে পাঠিয়ে গোল করে ফের ম্যানসিটিকে এগিয়ে দিলেন ওতামেন্দি। আর লুকাকু, সামনে একা গোলরক্ষককে পেয়েও বল মেরেছেন তাঁর গায়ে। শেষ পর্যন্ত হতাশার রাত কেটেছে এই বেলজিয়ানের, হতাশ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমর্থকরাও। নিজেদের মাঠে তারা ২-১ গোলে হেরে গেছে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে। ম্যানইউকে হারিয়ে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই থাকল ম্যানসিটি, দুইয়ে থাকা ম্যানইউ পড়ে রইল ৩৫ পয়েন্টেই। অথচ কাল জিতে ব্যবধানটা ৫ পয়েন্টে নামিয়ে আনার সুযোগ ছিল।

দুটি গোলই ম্যানইউ হজম করেছে সেটপিস থেকে। ৪৩ মিনিটে ডি ব্রুইনের কর্নার থেকেই দাভিদ সিলভার সামনে বলটা চলে আসে গোলমুখের জটলা থেকে, বলটা জালে পাঠাতে কোনো ভুল হয়নি তাঁর। মিনিটখানেক পরই ফাবিয়ান ডেলফের ভুলে গোল করেন মার্কাস রাশফোর্ড। প্রথমার্ধ শেষে ১-১ সমতা ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। কিন্তু এরপর খেলা শুরুর হওয়ার কিছুক্ষণের ভেতরই ওতামেন্দির অমন গোল আর লুকাকু ও মাতার জোড়া মিস ভেঙে দেয় রেড ডেভিলদের জয়েল স্বপ্ন। প্রিমিয়ার লিগে টানা ১৪ ম্যাচ জিতল ম্যানসিটি, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ৪১ ম্যাচ পর হারল ম্যানইউ। হোসে মরিনহোকে শেষ দিকে একটি পেনাল্টি না দেওয়ায় জোরালো অসন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা গেছে ডাগআউটে, অন্যদিকে জয়ের পর পেপ গার্দিওলার মুখটা অবশ্যই হাসি হাসি। শত্রুর ডেরায় এসে ডার্বি জিতে নিয়েছেন, তাও পুরনো এক প্রতিপক্ষকে হারিয়ে। শুধু কি তাই, ১১ পয়েন্ট লিড নিয়ে হয়তো শিরোপার রাস্তাটাও পরিষ্কার করে ফেললেন। বড়দিনের আগে ম্যানসিটিই থাকছে লিগ টেবিলের মাথায়। আর বড়দিনে যারা সবার ওপরে থাকে, মৌসুম শেষে তারাই যে লিগ জেতে, এটা তো প্রমাণিতই!

ড্র হয়েছে মার্সিসাইড ডার্বি। মো সালাহর গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল, পেনাল্টি থেকে গোল করে সমতায় ফেরান ওয়েইন রুনি। সাউদাম্পটনের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে আর্সেনালও। তবে বলা ভালো হার এড়িয়েছে। ৩ মিনিটে গোল হজমের পর ৮৮ মিনিটে জিরদের গোলে ১ পয়েন্ট পেয়েছে গানাররা। লিগে চেলসি দুইবার অঘটনের শিকার! পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকা ক্রিস্টাল প্যালেস ৭ ম্যাচ গোল ও জয়হীন থাকার পর চেলসির বিপক্ষে ম্যাচটায় দেখেছিল গোল ও জয়ের মুখ। অবনমন অঞ্চলে থাকা আরেক দল ওয়েস্টহামও টানা ৮ ম্যাচে ৫ হার ও ৩ ড্রয়ের পর জয়ের দেখা পেয়ে গেল চেলসিরই বিপক্ষে! ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে মার্কো আরনুতোভিচের একমাত্র গোলটাই শোধ দিতে পারেনি আন্তনিও কন্তের শিষ্যরা। ডেভিড ময়েস ওয়েস্টহামের দায়িত্ব নেওয়ার পর এটা প্রথম জয়। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে বিতাড়িত হওয়ার পর রিয়াল সোসিয়েদাদের কোচ হয়েও বার্সেলোনাকে ১-০ গোলে হারিয়ে চমক দেখিয়েছিলেন ময়েস। এবার চেলসি ময়েস ম্যাজিকের শিকার! নিউক্যাসেলকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে লিস্টার সিটি। ৭৩ মিনিট পর্যন্তও ছিল ২-২ সমতা, ৮৬ মিনিটে আওজে পেরেজের আত্মঘাতী গোলে ৩ পয়েন্ট লিস্টারের। বিবিসি, স্টার স্পোর্টস

মন্তব্য