kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

যখন শুনলাম মিরাজ-সাব্বির ওপেন করবে, আমি তো অবাক : পাপন

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৮:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যখন শুনলাম মিরাজ-সাব্বির ওপেন করবে, আমি তো অবাক : পাপন

কালের কণ্ঠ ফাইল ছবি

সংযুক্ত আমিরাতকে ২-০ তে ধবলধোলাই করে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আজ সকাল ৮টার দিকে দুবাই থেকে ঢাকায় পৌঁছেছেন নুরুল হাসান সোহানরা। এদিকে আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনের কেক কাটার পর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কথা বলেছেন ক্রিকেট নিয়ে।

মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাব্বির রহমানকে ওপেনিং করানোর কথা শুনে অবাক হয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘যখন শুনলাম মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাব্বিরের ওপেনিংয়ে নামবে, আমি তো অবাক। আমি শুধু বলেছিলাম, আমি সাব্বিরকে কখনো ওপেন করতে শুনি নাই। আমাকে বলল, একটা ম্যাচে করেছে। আমার ধারণা, এগুলো ট্রায়াল দিচ্ছে এবং নিউজিল্যান্ডে গিয়ে আরও কিছু ট্রাই করবে। এরপর ঠিক করবে। বিশ্বকাপে এবার যে দল খেলবে এটাকে আমরা কন্টিনিউ করবো তা না, এক বছর পরবর্তী বিশ্বকাপ পর্যন্ত। ’

একটা সময় দলের কম্পিনেশন সাজাতে হিমশিম খেলেও এখন অনেক অপশন আছে বলে মনে করেন বিসিবি প্রধান, ‘আমাদের দলের কম্বিনেশনটাই বানানো যাচ্ছিল না। আমাদের একটা আইডিয়া ছিল যে নতুন নতুন কিছু ছেলে ঢুকাতে হবে। এটা ছিল প্রথম প্লান। দেখেন আমরা এখন সাকিব ছাড়া মোটামুটি সবাই একেবারে নতুন না হলেও পরের (জেনারেশন)। এরমধ্যে কয়েকটা ছেলের খেলা তো অসম্ভব ভালো লাগে, মানে লিটন দাসের খেলা যেমন ভালো লাগত, এখনো লাগে। কিন্তু সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আফিফের ব্যাটিং দেখতেই ভালো লাগে। তার মানে তো এই না যে সে প্রত্যেকদিন রান করবে, সেটা বলছি না। সোহানের খেলা দেখতে খুবই ভালো লাগে। মেহেদী হাসান মিরাজের মতো খেলোয়াড় যে টি-টোয়েন্টিতে আমরা নিতামই না কখনো, এখন সাংঘাতিক ইম্প্যাক্ট খেলার মধ্যে থাকে, হয় ফিল্ডিংয়ে, না হয় বোলিংয়ে না হয় ব্যাটিংয়ে। কোথাও না কোথাও সে কিছু একটা করছে। এখন অনেকগুলো অপশন। ’

পেস বোলিংয়ে বাংলাদেশের ভরসা মুস্তাফিজুর রহমান ফর্মে ফিরবে বলে বিশ্বাস পাপনের, ‘মুস্তাফিজ তো নিঃসন্দেহে আমাদের এক নম্বর চয়েজ। আমাদের ধারনা সে কামব্যাক করবে, উচিত। যে মেজর শক্তি ওর ছিল সেটা ইদানিংয়ের ম্যাচে ওর থেকে দেখছি না। তবে সে ফিরবে, ঠিক হয়ে যাবে। ’



সাতদিনের সেরা