kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দিপ্তির ‘মানকড’ আউটের শিকার হয়ে কাঁদলেন শার্লি; তীব্র সমালোচনা

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৯:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিপ্তির ‘মানকড’ আউটের শিকার হয়ে কাঁদলেন শার্লি; তীব্র সমালোচনা

ছবি : টুইটার

‘মানকড’ আউট ক্রিকেটে স্বীকৃত একটা আইন। বোলার বল ডেলিভারির আগে যদি নন-স্ট্রাইক প্রান্তের ব্যাটার ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যান, তখন বোলার চাইলে বল ডেলিভারি না করে নন-স্ট্রাইকের স্টাম্প ভেঙে দিতে পারেন। এটাই মানকড আউট। যা নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক আছে।

বিজ্ঞাপন

কারণ বেশির ভাগ ক্রিকেটপ্রেমী এবং ক্রিকেটবোদ্ধা মানকড আউটকে ক্রিকেটের চেতনাবিরোধী হিসেবে মনে করেন। অনেকের কাছে এটা ‘পেছন থেকে ছুরি মারার মতো ব্যাপার’। এবার মেয়েদের ক্রিকেটেও দেখা গেল মানকড আউট।

বিতর্কিত এই আউটের শিকার হয়েছেন ইংল্যান্ডের শার্লি ডিন। আর তাকে আউট করেন ভারতের অফ স্পিনার দীপ্তি শর্মা। লর্ডসের ভারত ও ইংল্যান্ডের মেয়েদের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচটিতে ১৭০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছিল ইংল্যান্ড। দলীয় ১১৮ রানে তাদের ৯ উইকেট পড়ে যায়। তবু শেষ শেষ সঙ্গী ফ্রেয়া ডেভিসকে নিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন শার্লি। শেষ ৭ ওভারে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ১৭ রান। তখনই ঘটে এমন ঘটনা। দিপ্তির বল ডেলিভারির আগেই শার্লি নন-স্ট্রাইকের ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে পড়েন। দিপ্তি অনায়াসে তাকে মানকড আউট করেন। জিতে যায় ভারত।

এমন ঘটনায় হতবাক ৮০ বলে ৪৭ রান করা শার্লি ডিন মাঠে দাঁড়িয়েই কেঁদে ফেলেন।  হাত থেকে ব্যাট ছুড়ে দিয়ে, অবিশ্বাসের ভঙ্গিতে মাথা নাড়তে থাকেন। এর পরই ঘটনাটি নিয়ে ব্যাপক শোরগোল পড়ে যায়। ইংলিশ অলরাউন্ডার জর্জিয়া এলিস বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করতে পারছি না, ভারতীয়রা কিভাবে ভাবল যে উইকেটটা এভাবে নিতে হবে? ডিন কোনো সুবিধা নেওয়ার জন্য এগিয়ে যায়নি। খুবই অদ্ভুত লেগেছে ব্যাপারটি। এ ঘটনা ঝুলনের বিদায়ের মুহূর্তটিকে ম্লান করে দিয়েছে। ’

উল্লেখ্য, এটাই ছিল ভারতের তারকা ক্রিকেটার ঝুলন গোস্বামীর শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। ইংল্যান্ডের সাবেক স্পিনার অ্যালেক্স হার্টলি বলেছেন, ‘এটা ক্রিকেটীয় চেতনার সঙ্গে যায় না। কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচের শেষটা এভাবে হতে পারে না। ’ তবে ভারতের অধিনায়ক হারমানপ্রীত কাউর বিষয়টা নিয়ে কথা বলতেই রাজি নন। ম্যাচ শেষে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি তো মনে করেছিলাম প্রথম ৯ উইকেট নিয়ে জিজ্ঞেস করবেন। ওই উইকেটগুলো নেওয়া তো সহজ ছিল না। আর এ ধরনের আউট আইসিসির আইনেই আছে। আমার তো মনে হয়, দীপ্তির করা এই আউট ব্যাটারদের আরো সচেতন করবে। ’



সাতদিনের সেরা