kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফাইনাল হারের হতাশায় ভারতীয় সাংবাদিকের মুঠোফোন কেড়ে নেন রমিজ!

অনলাইন ডেস্ক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৫:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফাইনাল হারের হতাশায় ভারতীয় সাংবাদিকের মুঠোফোন কেড়ে নেন রমিজ!

শ্রীলঙ্কার কাছে এশিয়া কাপের ফাইনালে হেরে রানার্স-আপ হয়েছে পাকিস্তান। গতকাল রাতের ম্যাচে দুর্দান্ত ভয়ডরহীন শ্রীলঙ্কার সামনে পাত্তাই পায়নি তারকাবহুল পাকিস্তান দল। এতে স্বাভাবিকভাবেই মেজাজ খারাপ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান রমিজ রাজার। ম্যাচ শেষে তার প্রতিক্রিয়া জানতে গিয়ে এক ভারতীয় সাংবাদিক হেনস্তার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিজ্ঞাপন

রমিজ সেই সাংবাদিকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন এবং মোবাইল ফোন কেড়ে নেন!

ম্যাচের পরে এক ভারতীয় সাংবাদিক রমিজকে প্রশ্ন করেন, ‘পাকিস্তানের সমর্থকরা কষ্টে আছে। তাদের জন্য কোনো বার্তা দিতে চান?’ উত্তরে রমিজ বলেন, ‘আপনি নিশ্চয় ভারত থেকে এসেছেন। আপনারা তো খুব খুশি হয়েছেন। ’ রমিজকে তখন ওই সাংবাদিক পাল্টা বলেন, ‘খুশি হব কেন? আমি দেখলাম পাকিস্তানের সমর্থকরা কাঁদছেন। আমি কি কিছু ভুল বললাম?’ এরপর আর মাথা ঠাণ্ডা রাখতে পারেননি রমিজ। তিনি বলেন, ‘আপনি সবাইকে এক করে ফেলছেন। এটা ঠিক নয়। ’

ভারতীয় সেই সাংবাদিকের অভিযোগ, তার এ কথা শুনেই রমিজ রাজা তেড়ে এসে তার হাত থেকে মোবাইল ফোন কেড়ে নেন। পিসিবি চেয়ারম্যানের এই ব্যবহার ভালোভাবে নেননি ওই ভারতীয় সাংবাদিক। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘আমার প্রশ্ন কি ভুল ছিল? পাকিস্তানের সমর্থকরা কি কষ্টে ছিলেন না? বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে এই কাজ করা রমিজের উচিত হয়নি। আমার মোবাইল কেড়ে নেওয়া তার উচিত হয়নি। ’

এশিয়া কাপের ফাইনাল দেখতে দুবাই স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন রমিজ। ম্যাচের শুরুর দিকে তাকে হাসিমুখে দেখা যাচ্ছিল।  কিন্তু সময় যত এগোতে থাকে, ততই গম্ভীর হয়ে যায় তার মুখ। শেষদিকে একেবার থম মেরে গিয়েছিলেন রমিজ। ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানেও তাকে দেখে মনে হচ্ছিল ভেতরে ভেতরে বেজায় রেগে আছেন। আর কাউকে না পেয়ে সাংবাদিকদের সামনে সেই রাগের বিস্ফোরণ ঘটান। এখন দেখার এ ঘটনা কত দূর যায়।  



সাতদিনের সেরা