kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফুটবলে নিষিদ্ধ ভারত, ইতিবাচক দিকও দেখছেন ভাইচুং ভুটিয়া

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ আগস্ট, ২০২২ ১৩:৪৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফুটবলে নিষিদ্ধ ভারত, ইতিবাচক দিকও দেখছেন ভাইচুং ভুটিয়া

ফাইল ছবি

ভারতকে ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। ফুটবলীয় কার্যক্রমে তৃতীয় পক্ষের অনাকাঙ্ক্ষিত হস্তক্ষেপের অভিযোগে ভারতীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনকে (এআইএফএফ) এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে। এতে অবশ্য ইতিবাচক দিকই দেখছেন ভারতের সাবেক ভাইচুং ভুটিয়া।

ভারতের সাবেক অধিনায়কের মতে, নতুন করে সঠিক পথে ফেরার সুযোগ এখন ভারতীয় ফুটবল প্রশাসনের সামনে।

বিজ্ঞাপন

ফিফার ঘোষণার পরে ভাইচুং বলেন, ‘ভারতীয় ফুটবলকে নিষিদ্ধ করার ঘোষণা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। খুব কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। তবে সেই সঙ্গে এর একটা ভালো দিকও রয়েছে। ফুটবল প্রশাসনকে আবার ঠিক পথে ফেরানোর সুযোগ পেয়েছি আমরা। তার জন্য ফুটবল ফেডারেশন, সব রাজ্যের ফুটবল সংস্থাগুলোকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। ’

উল্লেখ্য যে, এই নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন ভারতের কোনো ঘরোয়া টুর্নামেন্টকে স্বীকৃতি দেবে না এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) ও ফিফা। জাতীয় দলও খেলতে পারবে না কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ। আগামী অক্টোবরে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য অনূর্ধ্ব-১৭ নারী বিশ্বকাপও আয়োজন করতে পারবে না ভারত। শিগগিরই এই টুর্নামেন্টের ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ফিফা।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ভারতীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে গত ১২ মে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন দিল্লি ফুটবল ক্লাবের শীর্ষ কর্তা। তার অভিযোগ, বেআইনিভাবে এক দশকের বেশি সময় এআইএফএফ-এর শীর্ষ পদ দখল করে বসে রয়েছেন প্রফুল প্যাটেল। সেই মামলার শুনানিতে ভারতের শীর্ষ আদালত রায় দেন, নির্বাচন করে নতুন কমিটি গঠন না হওয়া পর্যন্ত ফেডারেশনের সমস্ত দায়িত্ব এবং কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে তিন সদস্যের সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটির মাধ্যমে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর ভারতীয় ফুটবলের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আসে ফিফা এবং এএফসির প্রতিনিধি দল। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ফিফা স্পষ্ট জানায়, এআইএফএফ-এর নতুন সংবিধান ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে চূড়ান্ত করতে হবে। নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে। নির্বাচনে যারা জিতবেন, সেই কমিটিকে ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কাজ শুরু করতে হবে। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে না পারলে নির্বাসনের মুখে পড়তে হবে ভারতীয় ফুটবলকে। ৩১ জুলাই পেরিয়ে যাওয়ার পর আরও ১৫ দিন অতিরিক্ত সময় দিয়েও যখন কাজ হয়নি, তখন ফুটবল থেকে ভারতকে নিষিদ্ধ করল ফিফা।



সাতদিনের সেরা