kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ অক্টোবর ২০২২ । ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রিয়াল অধ্যায় শেষে বিদায় বলবেন আনচেলত্তি

অনলাইন ডেস্ক   

১৪ আগস্ট, ২০২২ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রিয়াল অধ্যায় শেষে বিদায় বলবেন আনচেলত্তি

দ্বিতীয় দফায় রিয়াল মাদ্রিদ অভিযান শেষে কোচিং ক্যারিয়ারকে বিদায় বলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কার্লো আনচেলত্তি। রিয়াল মাদ্রিদকে বিদায় বলার পর আর কোনো দলের দায়িত্ব নেবেন না ইতালিয়ান এই কোচ। তবে কবে নাগাদ বিদায় নেবেন সেটা এখনো জানাননি।

১৬ বছর খেলোয়াড়ি জীবনের পর প্রায় ৩০ বছর ধরে কোচিং পেশায় আছেন আনচেলত্তি।

বিজ্ঞাপন

জুভেন্টাস, এসি মিলান, চেলসি, পিএসজি, বায়ার্ন মিউনিখ, নাপোলি ও রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাবে কাজ করেছেন তিনি। এসি মিলানকে তিনটি এবং রিয়াল মাদ্রিদকে দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিতিয়েছে গড়েছেন রেকর্ড। যে রেকর্ড নেই আর কোনো কোচের। চেলসি, বায়ার্ন মিউনিখ ও পিএসজিকে জিতিয়েছেন লিগ শিরোপা।  

নাপোলি, এভারটনের দায়িত্ব সামলে গত বছর দ্বিতীয় দফায় রিয়ালের দায়িত্ব নেন কার্লো আনচেলত্তি। স্প্যানিশ ক্লাবটিতে ফিরেই লস ব্লাংকোদের জিতিয়েছেন লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগের মতো শিরোপা। এ মৌসুমের শুরুটাও হয়েছে উয়েফা সুপার কাপ জয়ের মধ্য দিয়ে।

কোচিংয়ে দুর্দান্ত সময় পার করা ৬৩ বছর বয়সী আনচেলত্তি বলছেন, বিদায় নেওয়ার সময় ঘনিয়ে আসছে। রিয়াল মাদ্রিদের অধ্যায় শেষ হলেই কোচিং পেশাকে বিদায় বলে দেবেন এই ইতালিয়ান। বিদায়ের কথা জানাতে গিয়ে আনচেলত্তি বলেছেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদে এই অধ্যায়ই আমার ক্যারিয়ারের শেষ। রিয়াল মাদ্রিদের পর আমি অবসরে যাব। ফুটবলে রিয়াল মাদ্রিদ সেরা ক্লাব। এই অভিজ্ঞতার পর আমার ক্যারিয়ার শেষ করা সঠিক হবে। ’

কোচিং ক্যারিয়ারে ২৪টি শিরোপা জিতেছেন আনচেলত্তি। রিয়াল মাদ্রিদ ও এসি মিলানের হয়ে সবচেয়ে বেশি শিরোপা পেয়েছেন তিনি। স্প্যানিশ ক্লাবটিকে সব মিলিয়ে আটটি শিরোপা জিতিয়েছেন তিনি। দ্বিতীয় দফায় জিতিয়েছেন চারটি। বর্তমান রিয়াল মাদ্রিদ সম্পর্কে আনচেলত্তি বলেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদ এই মুহূর্তে খুব উঁচু পর্যায়ে আছে। এই দলের তারকারা পা মাটিতেই রাখে এবং ক্লাবটিও খুব সিরিয়াস। মডরিচ, ক্যাসেমিরো এবং বেনজিমা; সবচেয়ে অভিজ্ঞরা দলকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে। ’ রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে আরো দুই বছর চুক্তি আছে তার। এই মেয়াদ শেষে চুক্তি বৃদ্ধি করবেন নাকি কোচিং পেশাকে বিদায় বলে দেবেন সেটা সময়ই বলে দেবে।



সাতদিনের সেরা