kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সিটিতে সময় নষ্ট করতে চাননি স্টার্লিং

অনলাইন ডেস্ক   

১২ আগস্ট, ২০২২ ১৬:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিটিতে সময় নষ্ট করতে চাননি স্টার্লিং

ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে সাত বছরের সম্পর্কের ইতি টেনে এ মৌসুমে চেলসিতে পাড়ি জমিয়েছেন রাহিম স্টার্লিং। ছোট বেলা থেকেই চ্যালেঞ্জ নিতে জানা স্টার্লিং ২৭ বছর বয়সে এসে নিলেন নতুন চ্যালেঞ্জ। সিটিতে যখন নিজের সুযোগ কমে আসার আভাস পাচ্ছিলেন তখনি আর সময় নষ্ট করতে চাননি তিনি। তাই নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে যোগ দিয়েছেন চেলসিতে।

বিজ্ঞাপন

ম্যানচেস্টার সিটির সাত বছরের ক্যারিয়ারে জিতেছেন চারটি প্রিমিয়ার লিগ। ছিলেন দলের অন্যতম তারকা হিসেবে। যদিও গেল বছর থেকেই দলের নিয়মিত সুযোগ হচ্ছিলনা তাঁর। এতে নতুন ক্লাবে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি। জানিয়েছিলেন, নিয়মিত সুযোগ পাওয়ার নিশ্চয়তা পেলে অন্য ক্লাবে চলে যাবেন। এ মৌসুমে আর্লিং হালান্ড সিটিতে যোগ দেয়ায় নিয়মিত খেলার সুযোগ কমার আশঙ্কা তৈরি হয়। যদিও সিটি চেয়েছিল তাঁর সঙ্গে চুক্তি বৃদ্ধি করতে কিন্তু সে পথে না হেঁটে নতুন চ্যালেঞ্জ নিলেন স্টার্লিং।  

সিটি ছেড়ে কেনো চেলসিতে যোগ দিলেন সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন স্টার্লিং,'১৭ বছর বয়স থেকে আমি নিয়মিত একাদশে খেলি। ক্যারিয়ারের চূড়ায় পৌছাতে নিয়মিত খেলতে না পারাটা আমি মানতে পারব না। আমার ব্যক্তিত্ব হল সবসময় লড়াই করা ও চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে দৃশ্যপট পরিবর্তন করা। সেটাই হচ্ছিলনা তাই ক্লাব পরিবর্তন করা। '

২০১৫-১৬ মৌসুমে লিভারপুল ছেড়ে ম্যানচেস্টার সিটিতে নাম লিখিয়েছিলেন স্টার্লিং। সিটির জার্সিতে ৩৩৯ ম্যাচ খেলে করেন ১৩১ গোল। জিতেছেন চারটি লিগ শিরোপাসহ এফএ কাপ, লিগ কাপের মত শিরোপা। এখন ক্যারিয়ারের সেরা সময়ে আছেন মনে করেন তিনি। তাই এই মুহূর্তে নিয়মিত না খেলে বেঞ্চে বসে থাকতে চান না স্টার্লিং। চেলসিতে চ্যালেঞ্জ জেতার প্রত্যাশা স্টার্লিংয়ের,'ব্যক্তি হিসেবে সবাই কিছু অর্জন করার চেষ্টা করে। শেষ দিকে আমার মনে হচ্ছিল, বিভিন্ন কারণে সিটিতে আমার খেলার সময় কমে আসছিল। এই সময়টা হারানো আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই আমার আগের মতো একই ধাপে থাকার এবং নতুন চ্যালেঞ্জ বেছে নেওয়া প্রয়োজন ছিল। '



সাতদিনের সেরা