kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

'৩৬'-এর ব্রড বনাম '৩৫'-এর ব্রড

সত্যজিৎ কাঞ্জিলাল   

২ জুলাই, ২০২২ ১৯:০৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'৩৬'-এর ব্রড বনাম '৩৫'-এর ব্রড

এক ওভারে ৩৬ ও ৩৫ রান -ব্যবধান ১৫ বছরের। ছবি : টুইটার

স্টুয়ার্ট ব্রডের তখন টেস্ট অভিষেকই হয়নি। ২১ বছরের তরুণ ওয়ানডে খেলেছেন ১৬টি আর টি-টোয়েন্টি খেলেছেন মাত্র সাতটি। তাও নিয়মিত ছিলেন না। এই অভিজ্ঞতা নিয়েই তিনি সুযোগ পেয়ে যান ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে।

বিজ্ঞাপন

অবশেষে এলো ২০০৭ সালের সেই ১৯ সেপ্টেম্বর। বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের মুখোমুখি হলো ইংল্যান্ড। কেউ কি জানত, সেদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিহাসের এক অবিস্মরণীয় দিন হতে যাচ্ছে; আর স্টুয়ার্ট ব্রডের জন্য হতাশার?

ম্যাচ চলাকালীন ইংলিশ অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফের সঙ্গে ঝগড়া লেগেছিল ভারতীয় অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংয়ের। তাই বেজায় রেগে ছিলেন যুবরাজ। সেই রাগ তিনি ঝাড়েন স্টুয়ার্ট ব্রডের শেষ ওভারে। ছয় বলে ছয় ছক্কা মেরে ইতিহাসে নিজের নাম স্থায়ীভাবে লিখে ফেলেন যুবরাজ। ওই ওভারে ৩৬ সহ ৪ ওভারে মোট ৬০ রান দিয়ে ব্রডের তখন আক্ষরিক অর্থেই মাথায় হাত! কয়েক দিন পর স্টুয়ার্ট ব্রডের বাবা ক্রিস ব্রড তো যুবরাজকে পেয়ে বলেই ফেলেন, 'তুমি আমার ছেলের ক্যারিয়ারটা শেষ করে দিলে!'

না, স্টুয়ার্ট ব্রডের ক্যারিয়ার শেষ হয়নি। ইংলিশ বোর্ড এবং সতীর্থদের সমর্থন পেয়ে সেই ব্রডই হয়ে ওঠেন ইংল্যান্ডের ইতিহাসের অন্যতম সেরা পেসার। ব্রড-অ্যান্ডারসনের পেস জুটি দীর্ঘদিন ধরে প্রতিপক্ষ শিবিরে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছে। দুই পেসার মিলে সাদা পোশাকে শিকার করেছেন হাজারের ওপর উইকেট। সেই ব্রড এখন টেস্টে ৫৫০*, ওয়ানডেতে ১৭৮ এবং টি-টোয়েন্টিতে ৬৫ উইকেটের মালিক! আজ শনিবার চলতি এজবাস্টন টেস্টে ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামিকে ফিরিয়ে তিনি ৫৫০তম শিকার ধরেন। একই সঙ্গে আরেক ভারতীয় পেসারের হাতে বেদম মার খেয়ে ফিরিয়ে আনেন ১৫ বছর আগের স্মৃতি!

এই টেস্টের জন্য ভারতের অধিনায়ক জসপ্রিত বুমরাহ আজ ব্রডের একটি ওভার থেকে ৩৫ রান তুলে নিয়েছেন!  যা টেস্ট ক্রিকেটের দেড় শ বছরের ইতিহাসে এক ওভারে সর্বোচ্চ রান নেওয়ার রেকর্ড। এত দিন ধরে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সবচেয়ে খরুচে (৩৬ রান) বোলিংয়ের রেকর্ডটা শ্রীলঙ্কার আকিলা ধনাঞ্জয়ার সঙ্গে ভাগাভাগি করে আসছিলেন ব্রড। এবার টেস্ট ফরম্যাটেও সবচেয়ে খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ডটা এককভাবে তার হয়ে গেল! দুটি ঘটনার মাঝে মিল খুঁজলে আরো পাওয়া যাবে। যেমন ১৫ বছর আগে ফ্লিনটফের ওপর খেপেছিলেন যুবরাজ আর এবার মার্ক বুচারের খোঁচা খেয়ে তেতে ছিলেন বুমরাহ। ওভারে ৩৫ রান দিয়ে আজ অবশ্য স্টুয়ার্ট ব্রড মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েননি, কারণ ৩৬ বছর বয়সে এসে আর যা-ই হোক, ক্যারিয়ার নিয়ে শঙ্কা নেই। তবে ব্রডের মতো মহাতারকার নামের পাশে এই দুটি রেকর্ড বড্ড বেমানান।



সাতদিনের সেরা