kalerkantho

সোমবার । ৮ আগস্ট ২০২২ । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ । ৯ মহররম ১৪৪৪

নারী কেলেঙ্কারি-ফিক্সিংয়ে জড়ানো পাকিস্তানি আম্পায়ার এখন জুতা বিক্রেতা!

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ জুন, ২০২২ ১৪:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারী কেলেঙ্কারি-ফিক্সিংয়ে জড়ানো পাকিস্তানি আম্পায়ার এখন জুতা বিক্রেতা!

আইসিসির এলিট প্যানেলের আম্পায়ার ছিলেন পাকিস্তানের আসাদ রউফ। ১৩ বছরের আন্তর্জাতিক আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারে তিনি যেমন সাফল্য পেয়েছেন, তেমনি তাঁর গায়ে লেগেছে কলঙ্কও। নারী কেলেঙ্কারি ও ফিক্সিংয়ের অভিযোগে আসে তার বিরুদ্ধে। ফিক্সিং কাণ্ডে ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হওয়ার পর এখন জুতার দোকানদার হিসেবে জীবিকা নির্বাহ করছেন আসাদ রউফ।

বিজ্ঞাপন

বর্তমানে লাহোরে একটি জুতার দোকান পরিচালনা করেন আসাদ। ২০১২ সালে এই পাকিস্তানি আম্পায়ারের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনেন ভারতীয় এক মডেল। বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করার গুরুতর অভিযোগ ছিল রউফের বিরুদ্ধে। যদিও এই আম্পায়ার সেই অভিযোগকে এখনো ভিত্তিহীন বলেন।

২০১৩ সালের আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং মামলায় আসাদ রউফকে দোষী সাব্যস্ত করেছিল তদন্ত কমিটি। এর পরে বিসিসিআই তার ওপর পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। রউফের বিরুদ্ধে বুকিদের কাছ থেকে দামি উপহার নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এর পর থেকে ক্রিকেটের বাইরে রয়েছেন রউফ।

বর্তমানে লাহোরের লান্ডা বাজারে নিজের দোকান পরিচালনা করেন রউফ।  সেখানে পুরনো জামাকাপড়, জুতো কম দামে পাওয়া যায়। হঠাৎ করে এ রকম একটা দোকান তিনি খুলতে গেলেন কেন? রউফ বলেন, ‘আমার কর্মচারীদের জন্য এই কাজ করি। ওদের সংসার যাতে চলে, সেটার চেষ্টা করি। কোনো লোভ নেই। অনেক টাকা দেখেছি জীবনে। আমি যেটাই করি, সেটার শিখরে পৌঁছানোর চেষ্টা করি। ক্রিকেট খেলার সময়ও তার শিখরে পৌঁছে গিয়েছিলাম। আম্পায়ারিংয়ের সময়েও তাই। এখন দোকানদার হিসেবেও সবার ওপরে পৌঁছতে চাই। ’



সাতদিনের সেরা