kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১১ আগস্ট ২০২২ । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১২ মহররম ১৪৪৪

'গোল যদি দশটা দেওয়া যায়, আমরা দশটাই দেব'

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২৫ জুন, ২০২২ ১৮:৫৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'গোল যদি দশটা দেওয়া যায়, আমরা দশটাই দেব'

ছবি : মীর ফরিদ

বিশ্ব ফুটবলে অনেক তারকা আছেন যারা নিজে গোল করার চেয়ে সতীর্থকে দিয়ে গোল করাতে আনন্দ পান। বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশের জার্সিতে সবচেয়ে বেশি গোল করেছেন। তাই এখন শুধু নিজে গোল করার দিকে মনোযোগ রাখছেন না সাবিনা। সতীর্থকে দিয়ে গোল করাতেও আনন্দ খুঁজে পান সাতক্ষীরার এই মেয়ে।

বিজ্ঞাপন

আগামীকাল রবিবার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মালয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ৬-০ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচে চোখ-ধাঁধানো একটি গোল করেন সাবিনা। প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে কাটিয়ে নিখুঁত কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নিয়েছিলেন এই তারকা ফরোয়ার্ড। জাতীয় দলের জার্সিতে প্রতিপক্ষকে বিধ্বস্তের ম্যাচে সবচেয়ে বেশি গোল থাকে এই সাবিনার।

আগের ম্যাচে ছয় গোল করেছে মেয়েরা। এ ম্যাচে লক্ষ্য কী থাকবে―এমন প্রশ্নে সাবিনা বলেন, 'গোল যদি দশটা দেওয়া যায়, আমরা তো দশটাই দিতে চাইব। মালয়েশিয়া যেহেতু প্রথম ম্যাচ হেরেছে, ওরাও হয়তো পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনবে কিভাবে গোল কম খাওয়া যায় বা কিভাবে আমাদের গোল দিতে পারবে। তাই তারা শক্তভাবেই ম্যাচে আসবে। '

মালয়েশিয়ার বিপক্ষে আগামীকাল জিতলেই ট্রফি উদযাপন করবে বাংলাদেশের মেয়েরা। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, 'আমাদের সিনিয়র টিম ভালো রেজাল্ট করছে। জাতীয় দলের বড় একটা সাফল্য আসবে, ঘরের মাঠে সেটা বাংলাদেশের জন্য বড় একটা পাওয়া। আমার এখন গোল করার থেকে গোল করাতেও অনেক ভালো লাগে। গত ম্যাচে আমাদের, বিশেষ করে সেট পিসগুলো আমি নিয়েছি, পরিকল্পনাও ছিল এ রকম। যখন ছোটরা গোল করে, সেটা দেখতে আমার ভালো লাগে। গোল করা অবশ্যই বেশি আনন্দের, তবে গোল করাতেও আনন্দ লাগে। '

সাবিনা খাতুন আরো বলেছেন, 'আমরা এখনো আত্মবিশ্বাসী। এদিক থেকে আমরা মনোযোগ সরাচ্ছি না, সরানোরও উপায় নেই। যেহেতু মালয়েশিয়া আগের ম্যাচে হারছে, এ ম্যাচে ওরা আরো ভালোভাবেই আসবে। এটাই স্বাভাবিক। আমাদের ছোট ছোট যে ঘাটতিগুলো ছিল, সেগুলো কোচেরা বলে দিয়েছেন, সেগুলো শুধরে নিয়েছি। আমরাও আশাবাদী যে আমরা সিরিজ জয়ের দিকেই থাকব। '

ম্যাচের আগে আজ মাঠের অনুশীলন করেনি মেয়েরা। হোটেলে সুইমিং ও টেকনিক্যাল ক্লাস করেই নিজেদের প্রস্তুত করছেন সাবিনা-কৃষ্ণারা। প্রথম ম্যাচে সিরাত জাহান স্বপ্না পেশিতে চোট পেয়েছেন। ব্যাক পেইন আছে তহুরা খাতুনের। এ দুজনের বাইরে কাউকে নিয়ে দুশ্চিন্তা নেই বাংলাদেশ দলে। ম্যাচের আগ পর্যন্ত স্বপ্নার জন্য অপেক্ষা করার কথা জানিয়েছেন গোলাম রব্বানী ছোটন।



সাতদিনের সেরা