kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

বিরতির পর কাল মাঠে ফিরছে প্রিমিয়ার লিগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২০ জুন, ২০২২ ১৫:৫৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিরতির পর কাল মাঠে ফিরছে প্রিমিয়ার লিগ

৩৮ দিন বিরতির পর আগামীকাল থেকে মাঠে ফিরছে প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল। মাঝখানে বসুন্ধরা কিংসের এএফসি কাপ ও জাতীয় দলের খেলা থাকায় শীর্ষ ফুটবলারদের অবশ্য বিশ্রামের ফুরসত ছিল না। কিংস যেমন তাদের সব খেলোয়াড়কে একসঙ্গে পেয়েছে গতকালই। ইনজুরির কারণে তাদের চার ফুটবলার মালয়েশিয়ায় যেতে পারেননি।

বিজ্ঞাপন

অস্কার ব্রুজোনের জন্য স্বস্তির, তাঁদের তিনজনই মাঠে নামার মতো ফিট হয়ে উঠেছেন।

আগামীকাল রহমতগঞ্জের বিপক্ষে সুমন রেজা, মতিন মিয়া ও মাশুক মিয়াকে নিয়ে তাই সংশয় নেই। তবে এএফসি কাপের সময় গোড়ালিতে চোট পাওয়া তারিক কাজী এখনো পুরো ফিট নন। অন্তত প্রথম ম্যাচে তাঁকে পাচ্ছেন না ব্রুজোন। রাইট ব্যাক রিমন হোসেন অবশ্য তৈরি। সেন্টার ব্যাকে খালিদ শাফিইর সঙ্গী হতে পারেন বিশ্বনাথ ঘোষ।

শেখ রাসেল মাঠে ফিরছে শেখ জামালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। জাতীয় দলের বিরতিতে রাসেলই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল সবচেয়ে বেশি। হাভিয়ের কাবরেরার ক্যাম্পে গিয়ে চোটে পড়েন হেমন্ত ভিনসেন্ট ও সাদ উদ্দিন। সাদের হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছে। এই লিগে তাঁকে পাচ্ছেই না শেখ রাসেল। তবে জুলফিকার আহমেদের জন্য স্বস্তির, পুরোদমে অনুশীলনে ফিরেছেন হেমন্ত ভিনসেন্ট। ‘আশা করি, প্রথম ম্যাচ থেকেই আগের ছন্দটা নিয়ে খেলতে পারব। সে জন্য অনুশীলনে বাড়তি পরিশ্রম করেছি। দ্বিতীয় লেগটা আমরা যেভাবে শুরু করেছিলাম, সেই ধারাটা দল হিসেবেও ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ আমাদের’—বলছিলেন হেমন্ত। সেন্টার ব্যাক আইজার আখমাতভকেও পাচ্ছে তারা এই লড়াইয়ে। আখমাতভ কলার বোনে চোট পেয়ে দেশে ফিরে গিয়েছিলেন। সেখানে অস্ত্রোপচারও হয়েছিল তাঁর। কিরগিজ এই সেন্টার ব্যাককে বাকি ম্যাচগুলোতে পাওয়া নিয়ে তাই শঙ্কা ছিল। তবে সেই ভয় দূর করে তিনি ফিরেছেন, এ মুহূর্তে অনুশীলনও করছেন নিয়মিত। প্রথম ম্যাচেই তাঁকে পেতে পারে রাসেল।

তৃতীয় স্থানে থাকা শেখ জামালের বিপক্ষে ম্যাচটা তাদের বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায়। জোসেফ আফুসির অধীনে জামাল দ্বিতীয় লেগেই প্রথম হেরেছে। রাসেলের বিপক্ষে এই ম্যাচ জিতলে আবাহনী মাঠে নামার আগে তারা অবশ্য দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসতে পারবে। জামালের জন্য বড় খবর, চোটের কারণে তিন মাস মাঠের বাইরে থাকা ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান এ ম্যাচ দিয়েই আবার খেলায় ফিরছেন। গত ফেব্রুয়ারিতে রহমতগঞ্জের বিপক্ষে পায়ে চোট পেয়েছিলেন এই সেন্টার ব্যাক। এরপর খেলতে পারেননি ১১টি ম্যাচ। ইয়াসিন আশা করছেন লিগটা নির্বিঘ্নে শেষ করতে আবার জাতীয় দলে ফেরার দাবিটাও জোরালো করতে পারবে।

বিরতির পর আবাহনী ফিরছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ডরিয়েলতনসহ সবাইকেই এ ম্যাচে পাচ্ছেন বলে দাবি মারিও লেমোসের। ওদিকে শফিকুল ইসলাম মানিকের অধীনে নতুন করে নামছে মোহামেডান।



সাতদিনের সেরা