kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

চট্টগ্রামে প্রথম জয়ের আশায় শ্রীলঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক   

১৪ মে, ২০২২ ১৯:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রামে প্রথম জয়ের আশায় শ্রীলঙ্কা

ছবি : কালের কণ্ঠ

কাল থেকে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে নামছে শ্রীলঙ্কা। এই ভেন্যুতে ২০১৪ সালের পর লংগার ভার্সনে বাংলাদেশের বিপক্ষে তারা কোনো ম্যাচ জিততে পারেনি। তবে দলের অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নের চাওয়া এবার সেই রেকর্ড থেকে বেড়িয়ে আসা।

চট্টগ্রামের এই ভেন্যুতে চারটি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কা।

বিজ্ঞাপন

দু’টিতে জিতেছে, দু’টিতে ড্র করেছে। নতুন দশকে প্রথমবারের মত দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়ে রেকর্ড ভাঙ্গতে চায় শ্রীলঙ্কা। আজ ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে করুনারত্নে বলেন, 'চট্টগ্রামে এখনও আমরা জিততে পারিনি (২০০৯ সাল থেকে)। আমরা এই রেকর্ড ভেঙ্গে জয় নিয়ে ঢাকায় যেতে চাই।

করুনারত্নের মতে বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়ের পেছনে বড় ভূমিকা রাখতে পারেন শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ নাভিদ নেওয়াজ। কারণ তিনি বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ ছিলেন। করুনারত্নে বলেন, 'এখানে কয়েক বছর ধরে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ ছিলেন নাভিদ। তাই এখানকার কন্ডিশন ভালো জানের তিনি। আমরা তার কাছ থেকে কিছু ধারনা পেতে পারি। এ জন্য আমাদেরকে প্রথম দিন থেকে পঞ্চম দিন পর্যন্ত ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। '

২০০১ সালের সেপ্টেম্বর থেকে প্রথম ১২ ম্যাচেই বাংলাদেশের বিপক্ষে জিতেছে শ্রীলঙ্কা। তবে ২০১৩ সালের মার্চ থেকে ঘুড়ে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। দুই দলের সর্বশেষ ১০ ম্যাচের মধ্যে বাংলাদেশ হারে পাঁচ ম্যাচ, জিততে পারে একটি। জয়টি ছিল ২০১৭ সালে। আর চারটি ম্যাচ ড্র হয়।

করুনারত্নে বলেন, 'দলে প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আছে। হ্যাঁ, ব্যাটার হিসেবে অবশ্যই আমার আরও কিছু আছে। আমাকে-অ্যাঞ্জেলোকে সিনিয়র খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের জ¦লে উঠতে হবে এবং এই কন্ডিশনে আমাদের কিছু ভালো ইনিংস খেলতে হবে। আমরা তরুণদের উপর বেশি চাপ দিতে চাই না। আগের বছরগুলোতে আমরা সত্যিই ভালো করেছি এবং আমি আশা করি আমরা এবারও ভালো করব। '

চট্টগ্রামের উইকেট ফ্লাট হওয়ায় এখানে বড় স্কোরের ম্যাচ হবার সম্ভাবনা দেখছেন করুনারত্নে, 'এখানকার উইকেট  বেশ ফ্লাট। হ্যাঁ, নিজেদের কন্ডিশনে দারুন পারফরমেন্স করে বাংলাদেশ। তবে আমরা মনে করি, আগের বছরগুলোর তুলনায় এবার  আমরা অনেক ভালো করতে পারবো। দেখবো তা কিভাবে সেটা করা যায়। '



সাতদিনের সেরা