kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সবার পাউরুটিতে মাখন লাগানো আমার কাজ নয় : শাস্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৫:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সবার পাউরুটিতে মাখন লাগানো আমার কাজ নয় : শাস্ত্রী

ভারতীয় ক্রিকেটে রবি শাস্ত্রী যুগের অবসান হয়েছে। দলে শাস্ত্রী-কোহলির একনায়কতন্ত্র নিয়ে অনেক গল্প প্রচলিত ছিল। শাস্ত্রী কোচের দায়িত্ব ছাড়ার পরও সেসব নিয়ে আলোচনা চলছেই। একদিন আগেই রবিচন্দ্রন অশ্বিন বলেছিলেন, শাস্ত্রীর মন্তব্যে তার কষ্টের কথা। ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরের পর রবি শাস্ত্রী প্রকাশ্যেই কুলদীপ যাদবকে বিদেশে ভারতীয়দের মধ্যে 'সেরা স্পিনার' বলেছিলেন। সেই কথায় খুব আহত হয়েছিলেন অশ্বিন।

ভারতের অভিজ্ঞ এই স্পিনার বলেছিলেন, 'রবি ভাইকে বরাবর সম্মানের চোখে দেখি। দলের সবাই সম্মান করে। আমরা অনেকেই কিছু মন্তব্য করে পরে তা প্রত্যাহার করে নেই। তবে সেই সময় নিজেকে চূর্ণ বিচূর্ণ মনে হয়েছিল। কুলদীপের জন্য আমিও খুশি ছিলাম। অস্ট্রেলিয়ায় আমারও ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেই। সেই কীর্তিই গড়েছিল কুলদীপ। এটা কত বড় ব্যাপার। কিন্তু সেই সময় আমার মনে হয়েছিল, আমাকে চলন্ত বাসের সামনে ফেলে দেওয়া হয়েছে। আমি কীভাবে সতীর্থের জন্য খুশি হতাম?'

এবার অশ্বিনের সেই বিষ্ফোরক বক্তব্যের জবাব দিলেন শাস্ত্রী। একটি লাইভ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, 'অশ্বিন সিডনি টেস্টে খেলেনি। কুলদীপ দারুণ বোলিং করেছিল। তাই কুলদীপের আরও সুযোগ পাওয়া উচিত ছিল। যদি এটা অশ্বিনকে আঘাত দিয়ে থাকে। তাহলে আমি খুশি। কারণ আমি চেয়েছিলাম সে আলাদা কিছু করুক। সবার পাউরুটিতে মাখন লাগানো আমার কাজ নয়। প্রকৃত তথ্য প্রকাশ করা আমার কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে।'

শাস্ত্রী মনে করেন, একজন ক্রিকেটারের উচিত এসব ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ নিয়ে নিজেকে পাল্টে ফেলা। আরও উন্নত করা। তিনি আরও বলেছেন, 'যদি কোচ আপনাকে চ্যালেঞ্জ করে, তাহলে আপনি কী করবেন? বাড়ি ফিরে কাঁদতে কাঁদতে বলবে, আমি আর ফিরে আসতে পারব না? ক্রিকেটার হলে আমি চ্যালেঞ্জ নিয়ে কোচকে ভুল প্রমাণ করতে উঠেপড়ে লাগতাম। যদি আমার বক্তব্য অশ্বিনকে আঘাত দিয়ে থাকে, তাহলে আমি খুশি। কারণ এতে সে নিজেকে বদলে ফেলে আবারও ফিরে এসেছে।'



সাতদিনের সেরা