kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ মাঘ ১৪২৮। ২৮ জানুয়ারি ২০২২। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়, শুরুতেই সাজঘরে ৩ ব্যাটার

অনলাইন ডেস্ক   

৭ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৫:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়, শুরুতেই সাজঘরে ৩ ব্যাটার

বৃষ্টিবিঘ্নিত ঢাকা টেস্টের আজ চলছে চতুর্থ দিন। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ৪ উইকেটে ৩০০ রান তোলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছে খুবই বাজে।

২২ রানেই বাংলাদেশ হারিয়েছে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটারকে।

বিজ্ঞাপন

অভিষেক ম্যাচে শূন্য রানে সাজঘরে ফিরেছেন ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়। ৭ বল খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি তিনি। এরপর সাজঘরে ফিরেছেন ২৮ বলে ৩ রান করা সাদমান ইসলাম। দুটি উইকেটই পেয়েছেন পাকিস্তানি স্পিনার সাজিদ খান।

চারে নামা অধিনায়ক মমিনুল হক হয়েছেন রানআউটের শিকার। হাসান আলীর সরাসরি থ্রোতে রানআউট হন তিনি। প্রতিবেদন লেখার সময় বাংলাদেশের স্কোর ৩ উইকেটে ২২ রান। নাজমুল হোসেন শান্ত ১৩ ও মুশফিকুর রহীম শূন্য রানে ব্যাট করছেন।

এর আগে, ২ উইকেটে ১৮৮ রান নিয়ে আজ চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করেন বাবর আজমরা। দলীয় ১৯৩ রানের মাথায় ৫৬ রান করা আজহার আলীকে সাজঘরে পাঠান পেসার এবাদত হোসেন। এরপর দলীয় ১৯৭ রানে বাবর আজমকে ফেরান আরেক পেসার খালেদ আহমেদ। পাক দলপতির সংগ্রহ ৭৬ রান। এরপর জুটি গড়েন ফাওয়াদ আলম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান।

দুজনের গড়েন অবিচ্ছিন্ন ১০৩ রানের জুটি, পূরন হয় দলীয় ৩০০ রানও। তখনই ইনিংস ঘোষণা দেন বাবর। ফাওয়াদ আলম ৫০ ও মোহাম্মদ রিজওয়ান ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন।

বাংলাদেশের পক্ষে দুটি উইকেট পেয়েছেন তাইজুল ইসলাম। একটি করে উইকেট নিয়েছেন এবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদ। ১৯ ওভার বোলিং করেও কোনো উইকেট পাননি সাকিব আল হাসান।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারায় পাকিস্তান। ফলে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে আছে বাবররা। সিরিজ বাঁচাতে হলে ঢাকা টেস্টে জয়ের বিকল্প নেই টাইগারদের। টেস্ট সিরিজের আগে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ।



সাতদিনের সেরা