kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পারবে বাংলাদেশ?

অনলাইন ডেস্ক   

২১ নভেম্বর, ২০২১ ১৮:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পারবে বাংলাদেশ?

ছবি : এএফপি

প্রথম দুই টি-টোয়েন্টি হেরে ইতোমধ্যেই পাকিস্তানের কাছে সিরিজ হাতছাড়া করা বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন হোয়াইটওয়াশের মুখে। নিজ মাঠে হোয়ইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে জয় পেতে চায় টাইগাররা। আগামীকাল মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি শুরু হবে দুপুর ২টায়। অন্যদিকে সর্বশেষ বাংলাদেশ সফরে সিরিজ হারের প্রতিশোধ হোয়াইটওয়াশ দিয়ে নিতে চায় সফরকারী পাকিস্তান। 

সিরিজের প্রথম ম্যাচটি ৪ উইকেটে পরাজিত হলেও প্রতিন্দ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট খেলেছে বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াই করতে পারেনি। ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। দ্বিতীয় ম্যাচে ফখর জামানের ৫১ বলে অপরাজিত ৫৭ রানের সুবাদে তারা সহজ জয় পায়। জয়ের ধারায় ফিরতে ব্যর্থ হলে এই ফরম্যাটে ঘরের মাঠে একাধিক ম্যাচের সিরিজে প্রথমবারের মতো হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পাবে বাংলাদেশ।

গত এক মাসের মধ্যে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাংলাদেশ টানা ৭ ম্যাচ হেরেছে। আর শেষ ১০ ম্যাচের ৮ ম্যাচে হারের লজ্জা রয়েছে টাইগারদের। যদিও এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের তৃতীয় দীর্ঘতম হারের ধারা এটি। এর আগে ২০০৭-২০১০ পর্যন্ত দীর্ঘতম টানা ১২ ম্যাচ হেরেছিল। আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০১৬-১৭ সালে হেরেছিল টানা ৮টি ম্যাচ। কাল যদি পাকিস্তানের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়, তবে সেই লজ্জার রেকর্ড আবার ছুঁয়ে ফেলবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

এখন পর্যন্ত ১২২টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৪৩টিতে জয় ও ৭৭ ম্যাচে পরাজিত হতে হয়েছে। আর ২টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ জিতলেও বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং দুর্বলতা ছিল চোখে পড়ার মতো। এমনকি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যাটিং ব্যর্থতা অব্যাহত ছিল। পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ হওয়া প্রথম দুই ম্যাচে যথাক্রমে ৭ উইকেটে ১২৭ রান ও ৭ উইকেটে ১০৮ রান করেছিল বাংলাদেশ। ব্যাটিং ব্যর্থতা অব্যাহত থাকলে কাল হোয়াইটওয়াশ এড়ানো অসম্ভব।



সাতদিনের সেরা