kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপ ফুটবলে বাংলাদেশের প্রতিনিধি 'বানদো ডিজাইন লিমিটেড'

প্রেস রিলিজ   

২১ অক্টোবর, ২০২১ ২০:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপ ফুটবলে বাংলাদেশের প্রতিনিধি 'বানদো ডিজাইন লিমিটেড'

২২ অক্টোবর ২০২১ সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে '৩য় ফিফকো ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপ ফুটবল'। এই আসরে বাংলাদেশের প্রথম দল হিসেবে অংশ নিতে যাচ্ছে লায়লা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান বানদো ডিজাইন। দেশের কর্পোরেট ফুটবলের অন্যতম সফল দল বানদো ডিজাইন, যারা বাংলাদেশ ও ভারতে অনুষ্ঠিত অনেক আসরের শিরোপা জিতেছে। উল্লেখ্য যে, বিজিএমইএ কাপ ২০২০ আসরের শিরোপা জেতার সুবাদে ‌ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপে অংশগ্রহণের গৌরব অর্জন করেছে বানদো ডিজাইন। খেলা হবে ফুটসালের নিয়মে, একেক দলে থাকবে ৫ জন খেলোয়াড়।

ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপের আয়োজক ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব কর্পোরেট ফুটবল (ফিফকো), যার প্রধান কার্য্যালয় কানাডায় এবং বর্তমান সদস্য দেশ ৬০টি। এর আগে ২০১৮ সালে কানাডার মন্ট্রিলে এবং ২০১৯ সালে মোনাকোতে এই বৈশ্বিক আসর অনুষ্ঠিত হয়। আন্তর্জাতিক এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের জন্য বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি ও লায়লা গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব সিদ্দিকুর রহমান এবং বিজিএমইএ-র ডিরেক্টর ও শেলটেকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব তানভির আহমেদ যৌথভাবে বাংলাদেশ দলের পৃষ্ঠপোষকতা করছেন। 

ফিফকোর বর্তমান প্রেসিডেন্ট আলবার্ট জুবিলি প্রথমবারের মত বড় আসরে বাংলাদেশের কর্পোরেট ফুটবল টীম পেয়ে অত্যন্ত উচ্ছ্বসিত। এবারের দুবাইয়ের আসরটির সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে 'দুবাই স্পোর্টস কাউন্সিল এন্ড ট্যুরিজম দুবাই'। এছাড়া স্থানীয় আয়োজক হিসেবে রয়েছে 'হাই ফাইভ ইভেন্টস'। আগামী ২২ অক্টোবর বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে টুর্নামেন্টের পর্দা উঠবে। ২৪ অক্টোবর বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টায় গ্রান্ড ফিনালের মধ্য দিয়ে আসরের সমাপ্তি হবে। পাকিস্তান ভিত্তিক স্পোর্টস মিডিয়া কোম্পানি 'স্পোর্টসফেভার ৩৬০' এর সহযোগিতায় টুর্নামেন্টের লাইভ কাভারেজ প্রচারিত হবে ফিফকো ওয়ার্ল্ড কর্পোরেট চ্যাম্পিয়ন্স কাপের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেল 'ফিফকো টিভি'-তে। 

বানদো ফুটবল দলের কর্ণধার সামিরা আলম এবং নেতৃত্বে আছেন বাংলাদেশের কর্পোরেট টুর্নামেন্টের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা ইমরানুর রহমান, যিনি ১৮৯টি অফিসিয়াল ম্যাচে ৩৭৭ গোল করেছেন। এই টীমে আরো আছেন মোবারক, রাজিব, পিয়াস ও মেহতাবের মত মেধাবী কর্পোরেট ফুটবলার। আছেন নিবেদিত খেলোয়াড় শাকিল, নির্ভরযোগ্য ও পরিশ্রমী খেলোয়াড় মামুন এবং সৃজনশীল ও বানদোর কনিষ্ঠ ফুটবলার মৃদুল।  



সাতদিনের সেরা