kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

আফগান ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে যে সিদ্ধান্ত নিল আইসিসি

অনলাইন ডেস্ক   

১০ অক্টোবর, ২০২১ ২০:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আফগান ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে যে সিদ্ধান্ত নিল আইসিসি

কিছুদিন আগেই আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করেছে তালেবান। সাথে সাথেই মেয়েদের ওপর নেমে এসেছে নির্যাতন আর বিধিনিষেধের খড়গ। ক্রিকেটসহ মেয়েদের সমস্ত খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গেছে। আবারও যেন অন্ধকার যুগে হারিয়ে গেছে আফগান মেয়েরা। যে দেশ মেয়েদের ক্রিকেট খেলতে দেয় না, তাদেরকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নিতে না দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বিশ্বের অনেক ক্রিকেটার। যাদের একজন অজি অধিনায়ক টিম পেইন।

মেয়েদের ঘরে আবদ্ধ রাখা আইসিসির নীতির পরিপন্থী। তাই শুধু বিশ্বকাপ নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেই হারিয়ে যেতে পারে আফগানিস্তান। বিভিন্ন দেশ ও ক্রিকেটারদের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বিষয়টি নিয়ে আইসিসির সভায় আলোচনাও হয়েছে। আইসিসির গভর্নিং কাউন্সিলের ওই সভায় আফগানিস্তানের ওপর নজর রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। অর্থাৎ, আফগান ক্রিকেটের বিষয়ে 'ধীরে চলো' নীতি গ্রহণ করেছে আইসিসি। আগামী মাসের সভায় আফগানিস্তানের ক্রিকেট ভবিষ্যত নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

আইসিসির চিফ এক্সিকিউটিভ জিওফ অ্যালারডাইস এসব তথ্য মিডিয়ার কাছে তুলে ধরেছেন। গত আগস্ট মাসে আফগানিস্তানের দখল তালেবানদের হাতে যাওয়ার পর থেকেই ক্রিকেটের ক্ষেত্রে দেশটির একঘরে হয়ে যাওয়ার শঙ্কা তৈরি হয়। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও আফগান ক্রিকেট বোর্ডকে সতর্কবার্তা দিয়েছিল। তাদের সরকার যদি মেয়েদের ক্রিকেট খেলাতে বাধা দে,য় তাহলে হোবার্টে রশিদদের বিপক্ষে এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ বর্জন করবে অস্ট্রেলিয়া।

তালেবানরা অবশ্য এসব নিয়ে চিন্তিত নয়। তারা তো খেলাধুলাও খুব একটা পছন্দ করে না। তবে অজি বোর্ডের হুমকির পর আফগান বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, তারা নারী ক্রিকেটের পক্ষে এবং সরকারের পরবর্তী নির্দেশের অপেক্ষায় আছে। তাদের বক্তব্যে আস্থা রেখেই আইসিসি সিদ্ধান্ত গ্রহণে আরেকটু সময় নিয়েছে। বর্তমানে রশিদ খানেরা কাতারে অনুশীলন করছে। ২৫ অক্টোবর কোয়ালিফাইং রাউন্ড থেকে উঠে আসা একটি দেশের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আফগানদের বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হবে।



সাতদিনের সেরা