kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হায়দরাবাদের বিদায়, টিকে রইল পাঞ্জাব

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৪:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হায়দরাবাদের বিদায়, টিকে রইল পাঞ্জাব

আইপিএলের চলতি আসরে বাঁচা-মরার ম্যাচে শনিবার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের করা ১২৫ রানও করতে পারেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ২০ ওভারে ৭ উইকেটে তারা করতে পারে ১২০ রান। ৫ রানের দারুণ এক জয়ে প্লে-অফের আশা টিকিয়ে রেখেছে পাঞ্জাব। আমিরাত পর্বে এই প্রথম কোনো দল মাত্র ১২৫ রান করেও জয় পেল।

১০ ম্যাচ থেকে ৮ পয়েন্ট সংগ্রহ করে পাঞ্জাব উঠে এসেছে পয়েন্ট টেবিলের পঞ্চম স্থানে। অন্যদিকে ৯ ম্যাচ থেকে হায়দরাবাদের সংগ্রহ মাত্র ২ পয়েন্ট। যথারীতি তারা আছে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১২৬ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে হায়দরাবাদ ৬০ রান তুলতেই হারিয়ে বসে ৫ উইকেট। একে একে বিদায় নেন ডেভিড ওয়ার্নার (২), কেন উইলিয়ামসন (১), মানিশ পান্ডে (১৩), কেদার যাদব (১২) ও আব্দুল সামাদ (১)। সেখান থেকে জয়ের আশা জাগান ঋদ্ধিমান সাহা ও জ্যাসন হোল্ডার। তারা ৩০ রানের জুটি গড়ে দলীয় সংগ্রহকে ১৬ ওভারে নিয়ে যান ৯২ তে। জয়ের বন্দর থেকে হায়রদাবাদ তখন ৩৩ রান দূরে। কিন্তু এ সময় সাহা রান আউট হলে জয়ের বন্দর থেকে সরে যেতে থাকে অরেঞ্জ আর্মিরা। যদিও জ্যাসন হোল্ডার ঝড় তুলেছিলেন। কিন্তু সেটা দলকে জেতানোর জন্য যথেষ্ট হয়নি। তিনি ২৯ বলে ৫ ছক্কায় ৪৭ রানে অপরাজিত থাকেন। অস্তিত্ব রক্ষার ম্যাচে শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২০ রানের বেশি করতে পারেনি হায়দরাবাদ।

বল হাতে পাঞ্জাব কিংসের রবি বিষ্ণোই ৩টি ও মোহাম্মদ শামি ২টি উইকেট নেন।

এর আগে পাঞ্জাব কিংস পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ২৯ রান তুলেছিল। ৯.১ ওভারে তারা ২ উইকেট হারিয়ে ৫০ রান পূর্ণ করেছিল। ১৭.২ ওভারের মাথায় ১০০ পেরিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত করেছিল ৭ উইকেটে ১২৫ রান। ব্যাট হাতে এইডেন মার্করাম সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন। ২১ রান করেন লোকেশ রাহুল। অপরাজিত ১৮টি রান আসে হারপ্রিত ব্রারের ব্যাট থেকে। বল হাতে জ্যাসন হোল্ডার ৩টি উইকেট নেন। বল ও ব্যাট হাতে অলরাউন্ড নৈপূণ্য দেখিয়ে তিনি ম্যাচসেরা হন।



সাতদিনের সেরা